চুয়াডাঙ্গার খাড়াগোদা-গহেরপুর সড়কে সশস্ত্র মুখোশধারী ছিনতাইকারীদের তাণ্ডব লাশবাহী মাইক্রোবাসের গতিরোধ করে ছিনতাই : গ্রেফতার ২

 

বেগমপুর প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গা সদরের খাড়াগোদা-গহেরপুর সড়কের মধ্যবর্তী এদোজোলের বাঁকে রাস্তার ওপর গাছ ফেলে সশস্ত্র মুখোশধারী ছিনতাইকারীরা তাণ্ডব চালিয়েছে। লাশবাহী মাইক্রোবাসের গতিরোধ করে ছিনতাইকারীরা অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে গেছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশ দুজনকে গ্রেফতার করেছে।

সরেজমিনে জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার তিতুদহ ইউনিয়নের গহেরপুর গ্রামের কলিম জোয়ার্দ্দারের ছেলে মশিয়ার রহমানের (৩০) মাথায় ব্রেন টিউমার ধরা পড়ে। তাকে চিকিৎসার জন্য গত বুধবার ভোরে ঢাকা ইবনেসিনা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক ব্রেন টিউমারের জন্য ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা লাগবে বলে মশিয়ারের সাথে থাকা লোকজনকে জানান। সেই মোতাবেক বাড়ি থেকে টাকাও ম্যানেজ করেন তারা। অপারেশনের আগে মশিয়ারকে আইসিইউতে রাখা হলে পরের দিন সকালে অপারেশনের পূর্বেই তার মৃত্যু হয়। মশিয়ারের লাশ নিয়ে সাথে থাকা লোকজন বাড়ির উদ্দেশে রওনা দেন। গত বৃহস্পতিবার রাত ৩টার দিকে লাশবাহী মাইক্রোটি তিতুদহের খাড়াগোদা-গহেরপুর সড়কের মধ্যবর্তী এদোজোলের বাঁকে পৌঁছুলে রাস্তার ওপর গাছ ফেলে মুখোশধারী ১০/১২ জন সশস্ত্র ছিনতাইকারী মাইক্রোর গতিরোধ করে। এ সময় ছিনতাইকারীরা অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে লাশের সাথে থাকা লোকজনের নিকট থেকে ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা লুট করে নেয়। একদিকে মশিয়ারের অকাল মৃত্যু অপরদিকে ছিনতাইকারীদের টাকা লুট। একই সাথে একটি পরিবারের ওপর দুটি শোকের ঘটনা ঘটায় গ্রামজুড়ে নেমে আসে শোকের ছায়া।

এদিকে ছিনতাইয়ের ঘটনায় চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশ নিহত মশিয়ারের চাচাতো ভাই গ্রামের জামে মসজিদের ইমাম সমসেরের ছেলে শহিদুল ও একই গ্রামের হান্নানের ছেলে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী মোখলেছুরকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ আটক করেছে। গ্রামবাসী জানায়, গ্রেফতারকৃত শহিদুল নিহত মশিয়ারের চাচাতো ভাই ও অপরজন বুদ্ধি প্রতিবন্ধী। এরা গ্রামের অতিসাধারণ মানুষ। নির্দয় ছিনতাইয়ের এ ঘটনাটি এলাকার বাতাসে ভাসছে। পুলিশ একটু তৎপর হলেই প্রকৃত অপরাধীদের খুঁজে পাবে। এ বিষয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মুন্সি আসাদুজ্জামান বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য যাদেরকে আনা হয়েছিলো তাদেরকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *