চুয়াডাঙ্গার ক্লিনিকে প্রসূতির সিজারের কিছুক্ষণ পরই হাড়গোড় ভাঙ্গা নবজাতককে নেয়া হয় হাসপাতালে

স্টাফ রিপোর্টার: ভূমিষ্ঠ হতে না হতেই হাড়গোড় ভেঙে কাতরাচ্ছে একদিনের নবজাতক। গত বৃহস্পতিবার রাতে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের অদূরবর্তী দেশ ক্লিনিকে প্রসূতি বেলী খাতুনের শরীরে অস্ত্রোপচার করে নবজাতককে ভূমিষ্ঠ করা হয়। কিছুক্ষণ পর নবজাতক ও প্রসূতিকে নেয়া হয় চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে।

নবজাতকের শরীরের একাধিক হাড় ভেঙেছে। কীভাবে? সিজার করে ভূমিষ্ঠর সময়ে অসতর্কতা নাকি অন্য কিছু? এ প্রশ্নের অবশ্য স্পষ্ট জবাব মেলেনি। তবে নবজাতকের পিতাসহ নিকটজনেরা বলেছেন, প্রসব বেদনা উঠলে প্রসূতি বেলী খাতুনকে দেশ ক্লিনিকে নেয়া হয়। বৃহস্পতিবার রাত ২টার দিকে অস্ত্রোপচার করে সন্তান ভূমিষ্ট করা হয়। কিছুক্ষণ পরে ক্লিনিক থেকে জানানো হয়, রোগী হাসপাতালে নিতে হবে। রাত সাড়ে ৩টার দিকে দামুড়হুদা হাউলীর রুদ্রনগর গ্রামের সাজুর স্ত্রী বেলী খাতুনকে নবজাতকসহ ভর্তি করা হয়। হাসপাতালের অর্থপেডিক কনসালটেন্ট পরীক্ষা নিরীক্ষার পর জানতে পারেন নবজাতকের হাতের হাড় ভেঙেছে, একটি হাড় খুলেও গেছে। জগতে আসতে না আসতেই ব্যচারিকে কাতরাতে হচ্ছে যন্ত্রণায়। হায়রে চিকিৎসা!

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *