চুয়াডাঙ্গার কুন্দিপুর গ্রামে বিএনপি নেতার বাড়িতে দুর্বৃত্তদের হানা

নেতাকে লক্ষ্য করে বোমা নিক্ষেপ : তিনজনকে পিটিয়ে জখম

বেগমপুর প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গার কুন্দিপুর গ্রামে বিএনপি নেতা ইসমাইল হোসেনের বাড়িতে পাটির পরিচয়ে একদল দুর্বৃত্তরা হানা দিয়েছে। প্রাণ বাঁচাতে জানালা ভেঙে পালানোর সময় দুর্বৃত্তরা পিছু নিয়ে বিএনপি নেতাকে লক্ষ্য করে একটি শক্তিশালী বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। বোমাটি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে বিস্ফোরিত হওয়ায় গোটা এলাকা প্রকম্পিত হয়ে ওঠে। চিৎকার দেয়ার অপরাধে ৩ জনকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। পরিবারজুড়ে বিরাজ করছে চরম আতঙ্ক।

পুলিশ ও গ্রামসূত্রে জানা গেছে, গত রোববার রাত ১টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বেগমপুর ইউনিয়নের কুন্দিপুর গ্রামের দোয়াবক্স মল্লিকের ছেলে বেগমপুর ইউনিয়ন বিএনপির যুগ্মসাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেনের বাড়িতে পাটি পরিচয়ে একদল দুবৃর্ত্তরা হানা দেয়। এ সময় ইসমাইলের মায়ের সাথে দুর্বৃত্তদের বাগবিতণ্ডা হয়। ঘরের মধ্যে ঘুমিয়ে থাকা ইসমাইল বিষয়টি টের পেয়ে যায়। দুর্বৃত্তরা ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করার চেষ্টা চালালে ইসমাইল পেছনের জানালা ভেঙে প্রাণ ভয়ে পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় ইসমাইলের পিছু নেয় দুর্বৃত্তরা। ইসমাইলকে লক্ষ্য করে একটি শক্তিশালী বোমা নিক্ষেপ করে তারা। বোমাটি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে বিকট শব্দে বিস্ফোরিত হয়। বোমার বিস্ফোরণে গোটা এলাকা প্রকম্পিত হয়ে ওঠে। ঘুমন্ত গ্রামবাসী রাস্তায় বেরিয়ে পড়ে। চিৎকার দেয়ার অপরাধে দুর্বৃত্তরা লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে জখম করে লালমিয়ার ছেলে আনোয়ার হোসেন (৫০), আনোয়ারের দু ছেলে মোহন (২৫) ও রাজনকে (২০)। খবর পেয়ে দোস্তবাজারে অবস্থান করা হিজলগাড়ি ফাঁড়ি পুলিশের টহলদল দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। পুলিশ গ্রামবাসীকে সাথে নিয়ে গ্রামের বিভিন্ন মাঠে তল্লাশি চালায়।

গ্রামবাসী জানায়, প্রথমে ধারণা করা হচ্ছিলো গ্রামে ডাকাতি পড়েছে। আহতদের বর্ণনা মতে জানা গেলো এরা ডাকাতি করতে আসেনি। ইসমাইলকে খুনের উদ্দেশেই তার বাড়িতে হানা দিয়েছে। এ ব্যাপারে হিজলগাড়ি ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ এএসআই শরিফ উদ্দিন বলেন, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে দুর্বৃত্তরা ইসমাইলের বাড়িতে হানা দিয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *