চুয়াডাঙ্গার কুতুবপুরে যৌতুকের দাবিতে স্বামী-শাশুড়ির নির্যাতন

এক সন্তানের জননী রাজু খাতুনের রহস্যজনক মৃত্যু
স্টাফ রিপোর্টার: চুয়ডাঙ্গা সদর উপজেলার কুতুবপুর গ্রামের গৃহবধূ রাজু খাতুনের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সকালে পুলিশ রাজুর লাশ উদ্ধার করে। নিহত নাজমা খাতুন ওরফে রাজু খাতুন কুতুবপুর গ্রামের দিনমজুর আখতার হোসেনের স্ত্রী। স্বামী ও শাশুড়ির নির্যাতনের কারণে রাজু মারা গিয়ে থাকতে পারে বলে পরিবারের অভিযোগ। এ ব্যাপারে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।
এলাকাসূত্রে জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের ভুলটিয়া পিয়ারপুরপাড়ার সিরাজুল ইসলামের মেয়ে নাজমা ওরফে রাজু খাতুনের সাথে পার্শ্ববর্তী কুতুবপুর গ্রামে বছর তিনেক আগে বিয়ে হয়। বিয়ের পর স্বামী আখতার হোসেন ৪০ হাজার টাকা যৌতুক নেন। পরে স্বামী আখতার ও শাশুড়ি আকলিমা খাতুন আবার যৌতুক চান। মাঝে মাঝেই এক সন্তানের জননী রাজুকে পিতার বাড়ি থেকে যৌতুক আনার জন্য চাপ দিতে থাকেন এবং নির্যাতন করেন। এলাকার অনেকেই অভিযোগ করে বলেছেন, স্বামী আখতার পার্শ্ববর্তী শিবপুর গ্রামের এক নারীর সাথে পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে তোলেন। এতে বারণ করলে স্ত্রী রাজুর ওপর নির্যাতনের মাত্রা আরও বেড়ে যায়। গত সোমবার স্বামী-শাশুড়ি মিলে রাজুর ওপর নির্যাতন করেন। গতকাল বুধবার সকাল ১০টার দিকে রাজুর পিতার বাড়িতে খবর যায় যে, রাজু বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন। পরে তার পিতা পক্ষের লোকজন কুতুবপুরে যায়। তাদের ধারণা রাজুকে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে। রাজুর মা আনোয়ারা বেগম অভিযোগ করেন, রাজুকে হত্যার পর মুখে বিষ ঢেলে আত্মহত্যা বলে প্রচার করছে রাজুর স্বামী ও শাশুড়ি। নিহত গৃহবধূর গলায়-মুখে ও কপালে আঘাতের চিহ্ন দেখা যায়।
অপরদিকে রাজুর শাশুড়ি আকলিমা বেগম জানান, মোবাইলফোনে কথা বলাকে কেন্দ্র করে আকতারের সাথে রাজুর ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে রাজু অভিমানে বিষপান করে। তাকে কোনো প্রকার নিযার্তন করা হয়নি। গ্রামের বয়স্ক রাশিদুল ম-ল বলেন, মোবাইল ফোনে কথা বলা নিয়ে রাজুর সাথে ঝগড়া হয়। পরে মোবাইলের সিমকার্ডটি রাজু ভেঙে ফেলায় আকতার তাকে বকাঝকা করলে সে এঘটনা ঘটায়। তাছাড়া গৃহবধূ রাজুর আত্মহত্যা নিষ্পত্তি করার লক্ষ্যে দেনমোহর বাবদ ৪০ হাজার টাকা ও কন্যা সন্তানের নামে বসতভিটা কিছু জমি রেজিস্ট্রির করে দেয়ার জন্য একটি চুক্তিপত্র করা হয়েছে বলে দু’পক্ষের লোকজন জানিয়েছে। অন্যদিকে কুতুবপুর ও সরোজগঞ্জ ফাঁড়ি পুলিশ গতকাল বিকেলে গৃহবধূ রাজুর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালমর্গে নেয়া হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার রাজুর লাশের ময়না করা হতে পারে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *