চুয়াডাঙ্গার কমলাপুর পিটিআই’র দুজন প্রশিক্ষণার্থীর দুটি মোটরসাইকেলের একটি গর্তের পানির ভেতর অপরটি হোস্টেলের নিকট থেকে উদ্ধার


সদরুল নিপুল: চুয়াডাঙ্গা কমলাপুর প্রাইমারি ট্রেনিং ইনন্সিটিউটে মোটরসাইকেল চোরের সিন্ডিকেটেরা গত মঙ্গলবার ভোরবেলা প্রশিক্ষণার্থীদের কাজী নজরুল ইসলাম হোস্টেলে নিচতলার সিঁড়ির নিচে থেকে সারিবদ্ধভাবে রাখা মোটরসাইকেলের মাঝ থেকে দুটি মোটরসাইকেল চুরি করা হলেও তা হজম করতে পারেনি চোর।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, প্রশিক্ষণার্থীর একজনের স্প্লিন্ডার প্লাস মোটরসাইকেলের ঘাড়ের লক খুলতে না পারায় গাড়িটি নিকটবর্তী তাপসী রাবেয়া হোস্টেলের এক পাশে ফেলে রেখে অপর ডিসকভারি মোটরসাইকেলটি পিটিআই’র একটি ভাঙা পাঁচিলের পাশে গর্তের ভেতর অতিরিক্ত পানি থাকার কারণে চোরেরা ফেলে চলে যায়। প্রশিক্ষণার্থীরা জানান, গতপরশু দিন ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে ফজরের নামাজ পড়ে অনেকে পিটিআই’র বাইরে হাঁটতে যায়। ফজরের আজানের সময় নাইটগার্ডদের দায়িত্ব শেষ হয়ে যায়। ফজরের নামাজের সময় পিটিআই’র তিনটি হোস্টেলের নিচতলা কলাপসিকেবল গেটের তালা খুলে দেয়া হয়। বেশ কিছু প্রশিক্ষণার্থীরা এ সময় বাইরে হাঁটতে গেলে দেখতে পায় তাপসী রাবেয়া হোস্টেলে এক পাশে একটি মোটরসাইকেল পড়ে আছে। সংবাদটি দ্রুত সব হোস্টেলের ভেতর ছড়িয়ে পড়লে সবাই ছুটে আসেন। সবার ধারণা চোরেরা সংখ্যায় ২/৩ জন ছিলো। বর্তমানে প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে চোর আতঙ্ক বিরাজ করছে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, গত ৩/৪ দিন আগে অতিবর্ষণে পিটিআই’র দক্ষিণ সাইডের পাঁচিলের একটি বড় অংশ ভেঙে পড়ে। কমলাপুর পিটিআই’র সুপারিনটেনডেন্ট মোল্লা শহিদুজ্জামান চুরির অপচেষ্টার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *