চুয়াডাঙ্গাও মেহেরপুর বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস পালিত

0
32

 

এবারের প্রতিপাদ্য : তামাকের ওপর কর বাড়াও, রোগ মৃত্যুর হার কমাও

স্টাফ রিপোর্টার: ‘তামাকের ওপর কর বাড়াও, রোগ মৃত্যুর হার কমাও’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে চুয়াডাঙ্গায় বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস’ ২০১৪ পালিত হয়েছে। জেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ এ উপলক্ষেগতকাল শনিবার বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে। সকাল ১০টায় সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. পরিতোষ কুমার ঘোষের সভাপতিত্বে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. দেলোয়ার হোসাইন।বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবুল আমিন ও বিএমএ’র সভাপতি ডা. মার্টিন হীরক চৌধুরী। অনুষ্ঠানে সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তা, এনজিও, সামাজিক সংগঠন ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন।প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মো. দেলোয়ার হোসাইন বলেন, ‘সরকার তামাকজাত দ্রব্যের ওপর কর বৃদ্ধি করে থাকলেও তামাক কোম্পানিগুলো বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে বাজারে তামাকজাত দ্রব্য বাজারজাত করছে। এজন্য সকলকে সামাজিকভাবে আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে তামাক প্রতিরোধে।

মুজিবনগর প্রতিনিধি জানিয়েছে, গতকাল শনিবার সকালে বিশ্ব তামাক মুক্ত দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ডাব্লিউ বিবি ট্রাস্ট, এইড ও আশ্রয় সমাজ উন্নয়ন সংস্থার সহযোগিতায় তামাকের ওপর কর বাড়াও, রোগ মৃত্যুর হার কমাও প্রতিবাদ্য বিষয়ে মুজিবনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরিবার ও পরিকল্পনা কর্মকর্তা কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত বিশ্ব তামাক মুক্ত দিবসের আলোচনাসভায় উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. হাসান আলীর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন ডা. সাইফুল হেল আজম, আশ্রয় সমাজ উন্নয়ন সংস্থার পরিচালক এমএ হাসান সুমন, সাংবাদিক শেখ সফিউদ্দিন প্রমুখ। এর আগে বৃষ্টি উপেক্ষা করে হাসপাতাল চত্বরে ডাক্তার, নার্স, এনজিওকর্মী, সাংবাদিক ও সুধীমহল র‌্যালিতে অংশগ্রহণ করে।

মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, মেহেরপুরে বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শহরে র‌্যালি শেষে জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মাহামুদ হোসেন। মেহেরপুরের ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হেমায়েত হোসেন। অনুষ্ঠানের প্রতিপাদ্য বিষয়ের ওপর আলোকপাত করেন মেহেরপুর জেলা তামাকবিরোধী জোটের উপদেষ্টা রফিক-উল আলম। বক্তব্য রাখেন সুবাহ’র নির্বাহী পরিচালক মঈন উল আলম, এইড’র প্রোগ্রাম অফিসার তৌহিদ উদ দৌল্লা রেজা, হকার্স ফেডারেশন সমাজ কল্যাণ সমিতির সভাপতি মামলত হোসেন প্রমুখ। সভায় বক্তারা বলেন, দেশে তামাকজনিত কারণে প্রতি বছর মারা যায় ৫৭ হাজার মানুষ। আর পঙ্গুত্ববরণ করে ৩ লাখ ৮২ হাজার মানুষ। তামাকজাত দ্রব্যের ওপর করের পরিমাণ বৃদ্ধি হলে ধূমপায়ীর সংখ্যা যেমন কমবে; তেমনি নতুন ধূমপায়ী বৃদ্ধি হবেনা। অনতিবিলম্বে এ বিপুল সংখ্যক মৃত্যু ঠেকাতে যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণ করতে না পারলে এ মৃত্যুর পরিমাণ আরো বেড়ে যাবে। সভা শেষে কর বৃদ্ধির জন্য লিফলেট ক্যাম্পেইন করা হয়। জেলা টাস্কফোর্স কমিটি, এইড, সুবাহ্ ও তামাক বিরোধীজোট এ আলোচনাসভার আয়োজন করেন।

আলমডাঙ্গা ব্যুরো জানিয়েছে, আলমডাঙ্গায়দিবসটি পালন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে উপজেলা চত্বর থেকে বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস উপলক্ষে গতকাল সকাল ১০টার দিকে প্রত্যাশা সামাজিক উন্নয়ন সংস্থা, পিডিএস ও ডাব্লিউবিবি ট্রাস্টের আয়োজনে র‌্যালি ও লিফলেট বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়।উপস্থিত ছিলেন পিডিএস’র নির্বাহী পরিচালক সিরাজুল ইসলাম, আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহ আলম মন্টু রহমান, প্রত্যাশা সামাজিক উন্নয়ন সংস্থার সহসমন্বয়কারী আসাদুজ্জামান, আদিবাসী কমিটির সভাপতি রাজকুমার,বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের দফতর সম্পাদক শাহাবুল, শিক্ষক লান্টু মিয়া।

গাংনী প্রতিনিধি জানিয়েছেন,‘তামাকের উপর কর বাড়াও, রোগ মৃত্যুর হার কমাও’ এ প্রতিপাদ্যে মেহেরপুরের গাংনীতে বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল শনিবার দুপুরে র‌্যালি ও আলোচনাসভা করা হয়।পলাশীপাড়া হলরুমে আয়োজিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা তামাক নিয়ন্ত্রণ টাস্ক ফোর্স কমিটির সভাপতি আব্দুস সালাম। আলোচনাসভা শেষে একটি র‌্যালি গাংনী হাইস্কুলের সামনে থেকে শুরু হয় শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। স্বদেশ, এইড, এসপিইউএস, ওআরডি, এইচআরডিপি, পউস, উপজেলা তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়ন টাস্ক ফোর্স, বাংলাদেশ তামাক বিরোধী জোট ও ডাব্লিউবিবি ট্রাস্ট যৌথভাবে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here