ঘাটতি বাজেটের চাপ সাধারণ মানুষকেই নিতে হবে: বাম মোর্চা

স্টাফ রিপোর্টার: ঘাটতি বাজেটের চাপ শেষ পর্যন্ত সাধারণ মানুষকে নিতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন গণতান্ত্রিক বাম মোর্চার নেতৃবৃন্দ। সংগঠনের কেন্দ্রীয় পরিচালনা পরিষদের সদস্য শহীদুল ইসলাম সবুজ স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ মন্তব্য করেন তারা। যুক্ত বিবৃতিতে মোর্চার সমন্বয়ক মোশরেফা মিশু, কেন্দ্রীয় পরিচালনা পরিষদের সদস্য শুভ্রাংশু চক্রবর্তী, সাইফুল হক, জোনায়েদ সাকি, মোশাররফ হোসেন নান্নু, প্রফেসর সিদ্দিকুর রহমান, হামিদুল হক, মহিনউদ্দিন চৌধুরী লিটন বৃহস্পতিবার ঘোষিত বাজেট সম্পর্কে প্রাথমিক প্রতিক্রিয়ায় বলেন- ঘাটতি বাজেটের চাপ শেষ পর্যন্ত সাধারণ মানুষকেই বহন করতে হবে। অথচ এ বাজেট প্রস্তবনায় স্বল্প আয়ের সাধারণ মানুষের জন্য তেমন কোনো সুখবর নেই। নেতৃবৃন্দ বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম অর্ধেক এর নিচে নেমে এলেও বাজেট প্রস্তবনায় সাধারণ ভোক্তদেরকে তার সুফল পৌঁছে দেবার ব্যাপারে তেমন কোনো পদক্ষেপ নেই। উৎপাদক কৃষক ও শ্রমিকদের জন্য গতানুগতিক প্রস্তবনার বাইরে কার্যকরী কোনো ঘোষণা নেই। অন্যদিকে আবারো কালো টাকা সাদা করার পদক্ষেপের মধ্যদিয়ে দুর্নীতিবাজদের পরোক্ষভাবে উৎসাহ যোগানো হচ্ছে। প্রতিবছর যে সীমাহীন অর্থ সম্পদ বিদেশে পাচার হচ্ছে তা রোধ করে দেশে বিনিয়োগ ও কর্মসংস্থান বৃদ্ধির ব্যাপারে বাজেটে কোনো দিকনির্দেশনা নেই।

বাজেট প্রতিক্রিয়ায় বাম মোর্চার নেতৃবৃন্দ আরও বলেন- বিশাল আকারের প্রস্তাবিত বাজেটের সিংহভাগ ব্যয় করা হবে অনুৎপাদনশীল রাজস্ব খাতে। অথচ শিল্প কৃষির মতো উৎপাদনশীল খাত সমূহ প্রয়োজনীয় বাজেট বরাদ্দ থেকে এবারও বঞ্চিত। সামরিক খাতের বাজেট নিয়ে এবারও কোনো খোলামেলা আলোচনা নেই। পরিবহন, স্বাস্থ্য সেবার মতো গুরুত্বপূর্ণ সেবা খাত সমূহ প্রয়োজনীয় বরাদ্দ থেকে বঞ্চিত। বাজেট প্রতিক্রিয়ায় নেতৃবৃন্দ বাজেট প্রণয়ন ও বাজেট পাশের ধারাকে আমলাতান্ত্রিক হিসাবে আখ্যায়িত করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *