গ্রেফতারকৃত ৩ জনের ৭ দিনের রিমান্ড চেয়েছে পুলিশ

জীবননগরের সন্তোষপুর-আন্দুলবাড়িয়া সড়কে আলোচিত ডাকাতির ঘটনায়

 

জীবননগর ব্যুরো/আন্দুলবাড়িয়া প্রতিনিধি: জীবননগরের সন্তোষপুর-আন্দুলবাড়িয়া সড়কে আলোচিত ডাকাতির সাথে জড়িত সন্দেহভজন গ্রেফতারকৃত ৩ আসামিকে ৭ দিনের রিমান্ডে চেয়েছে পুলিশ। তদন্তকারী পুলিশ কর্মকর্তা জীবননগর থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই কবীর সংশ্লিষ্ট মামলার অগ্রগতির স্বার্থে আসামিদের আরো জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। বিজ্ঞ আদালত শুনানির দিন ধার্য করেছেন।

পুলিশসূত্রে জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জীবননগর থানা পুলিশ গত বুধবার রাতে উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের মারুফদহ গ্রামে অভিযান চালিয়ে সরোয়ার রহমান ওরফে সারথ ও বৃহস্পতিবার রাতে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার তিতুদহ ইউনিয়নের খাসপাড়া গ্রামের আবুল খাঁর ছেলে সাইদুর ও গবরগাড়া গ্রামের জলিল সিকদারের ছেলে হান্নানকে গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারকৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে পুলিশ পরদিন সংশ্লিষ্ট মামলায় আদালতে সোপর্দ করে। বিজ্ঞ আদালত আসামিদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণ করার নির্দেশ দেন।

সূত্র জানায়, ছিনতাইকারী চক্রের অন্যতম সদস্য বদর উদ্দিনের সাথে গ্রেফতারকৃত খাসপাড়া গ্রামের সাইদুর ও গবরগাড়া গ্রামের হান্নানের রয়েছে দীর্ঘদিনের সখ্য। তারা এলাকায় গ্যাংগ্রুপ গঠন করে ছিনতাই, ডাকাতি ও চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অপরাধ সংঘটিত করে আসছিলো।

সূত্র আরো জানায়, বদরের নেতৃত্বে গ্রেফতারকৃতরা সন্ধ্যার পর গ্রামের বিভিন্ন মাঠে নিয়মিত গোপন বৈঠকে মিলিত হতো। বৈঠক শেষে গ্যাংগ্রুপটি পরিকল্পনা নিয়ে রাতে বিভিন্ন এলাকায় অপরাধ সংঘটিত করে আসছিলো। এছাড়াও গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে গ্রামের কয়েকজন ব্যক্তিকে অস্ত্রের ভয়ভীতি দেখিয়ে চাঁদাবাজি করার অভিযোগ উঠেছে। অপর গ্রেফতারকৃত জীবননগর উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের সরোয়ার রহমান ওরফে সারথের বিরুদ্ধে রয়েছে এলাকায় ব্যাপক চাঁদাবাজির অভিযোগ।

প্রসঙ্গত, গত ১৭ নভেম্বর রাতে হান্নান ও সাইদুরের নেতৃত্বে ১৬/১৬ জন জনের সশস্ত্র ডাকাত সন্তোষপুর-আন্দোলবাড়িয়া সড়কের একতারপুর নামকস্থানে গাছ ফেলে ট্রাক, পিকআপ, মিশুক ও আলমসাধুসহ অর্ধশতাধিক যানবাহন আটক করে ৪ লক্ষাধিক টাকার মালামাল ডাকাতি করে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *