গ্রামবাসীর প্রতিরোধের মুখে ডাকাতদলের পলায়ন

চুয়াডাঙ্গার চাঁদপুর বালিরগাদা মাঠের বটতলায় ডাকাতদলের অবস্থান

 

সদরুল নিপুল: ডাকাতির প্রস্তুতিকালে গ্রামবাসীর প্রতিরোধের মুখে ১০/১২ জনের ডাকাতদল পালিয়ে রক্ষা পেয়েছে। গ্রামের অধিকাংশ পুরুষ তাদের নিজ নিজ গরু নিয়ে ঢাকায় কোরবানির পশুহাটে বিক্রি করার জন্য ঢাকায় অবস্থান করছে। এ সুযোগে ডাকাতদল ডাকাতির সুযোগ খোঁজে। গ্রামবাসী সম্মিলিতভাবে ধাওয়া করলে ডাকাতদল সটকে পড়ে। ঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার রাত ১১টার দিকে চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের মোমিনপুর ইউনিয়নের চাঁদপুর গ্রামে।

গ্রামবাসী জানায়, চাঁদপুর গ্রামের কয়েক ব্যক্তি রাতে বাইরে হাঁটতে বের হয়। এ সময় তারা চাঁদপুর-কুলচারা সড়কের মাঝামাঝি স্থানে বালিগাদার মাঠের বটতলা নামক স্থানে দেখতে পায় ধারালো অস্ত্রসহ ১০/১২ জনের ডাকাতদল মাঠের ভেতর বৈঠক করছে। সংবাদটি দ্রুত গ্রামের জানিয়ে দেয়। গ্রামবাসী একত্রিত হয়ে লাঠিসোঁটা নিয়ে ধাওয়া করলে ডাকাতদল সটকে পড়ে।

চাঁদপুর গ্রামের লোকজন জানায়, গ্রামের অধিকাংশ পুরুষ গরু বিক্রির জন্য এখন ঢাকায় অবস্থান করছে। এ সুযোগে ডাকাতদল গ্রামে ডাকাতি করার চেষ্টা করেছিলো। গ্রামের অনেকে অভিযোগ করে বলে, চাঁদপুর থেকে কুলচারা সড়কটি ২ কিলোমিটার। সড়কটি কাচা হওয়ায় এবং বালিরগাদা মাঠের বটতলার রাস্তায় বালি থাকার কারণে মাঝেমধ্যে ছিনতাই ডাকাতির ঘটনা ঘটে। সড়কটি যাতায়াতের অনুপযোগী হওয়ায় কোনো ঘটনা ঘটার পর পুলিশ আসার আগেই ছিনতাইকারী বা ডাকাতরা নির্বিঘ্নে পালিয়ে যায়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *