গাংনী মিয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দপ্তরি কাম নৈশপ্রহরী নিয়োগ নিয়ে বিরোধ

 

মালিকানা দাবি করে স্কুলের জমিতে ব্যাড়া

স্টাফ রিপোর্টার: আলমডাঙ্গার গাংনী মিয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দপ্তরি কাম নৈশপ্রহরী নিয়োগ করাকে কেন্দ্র করে স্কুলের একপাশে ব্যাড়া দিয়েছে নিয়োগ প্রত্যাশীরা। বিদ্যালয়ের পুরাতন ভবনসহ বাথরুমের অংশের জমির মালিক মৃত লুকমান বিশ্বাসের ছেলে কাতব আলী, আমির হোসেন, দাউদ হোসেন ও আব্দুর রশিদ শর্ত দিয়ে স্কুলের ভবন নির্মাণের জন্য অনুমতি দেন। শর্তে বলা ছিলো এ পরিবারের একজনকে স্কুলে চাকরি দিতে হবে। এ দাবি নিয়ে জমির এক শরিক আব্দুর রশিদের ছেলে হালিম দপ্তরি কাম নৈশপ্রহরী পদে আবেদন করেন।

হালিমের পিতা আব্দুর রশিদ জানান, হালিম যোগদানের পর স্কুলের নামে জমি লিখে দেবেন। এছাড়া স্কুলের উন্নয়নের আশ্বাস দেন। কিন্তু বিদ্যালয়ের কমিটির সভাপতি আক্কাস আলীসহ সরকার দলীয় নেতারা লাখ লাখ টাকা নিয়ে অন্য প্রার্থীকে নিয়োগের ব্যবস্থা করতে থাকেন। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্কুলের একপাশে গতকাল বেড়া দিয়ে ঘিরে দিয়েছেন। টাকার বিনিময়ে নিয়োগ প্রত্যাশীর ৫জনের মধ্যে ৩জনই পরীক্ষা দেননি। যার ফলে পরীক্ষা স্থগিত হয়। বিয়ষটি চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের এমপি জাতীয় সংসদের হুইপ সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে ভুত্তভোগীগণ। এদিকে মোচাইনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গতপরশু নিয়োগের দিন থাকলেও অনিয়মের অভিযোগ তুলে প্রার্থীরা পরীক্ষা বর্জন করেছেন বলে জানা গেছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *