গাংনীর হিজলবাড়িয়ায় ফেনসিডিলসহ মাদকব্যবসায়ী গ্রেফতার

0
35

 

 

গাংনী প্রতিনিধি: মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার হিজলবাড়িয়া গ্রামে মাদকবিরোধী সফল অভিযানে ফেনসিডিলের বড় চালান আটক করেছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে পুলিশের বাধা ডিঙিয়ে পালাতে গিয়ে ধরা পড়েছে মাদকব্যবসায়ী ফজলুল হক (৫২)। পালিয়ে গেছে আরেক মাদকব্যবসায়ী গাংনীর মথুরাপুরের জোহা মিয়া। ট্রাক থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ১ হাজার ৯৯ বোতল ফেনসিডিল। ফজলু মিয়া কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার ছাতারপাড়া গ্রামের পিয়ার আলীর ছেলে।

পুলিশসূত্রে জানা গেছে, গাংনীর সীমান্ত থেকে ট্রাকযোগে ফেনসিডিল আনা হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে হিন্দা যৌথবাহিনীর নায়েক সামসুল আলমের নেতৃত্বে হিন্দা গ্রামের সড়কে অবস্থান নেয় পুলিশ। গাংনী থানার এসআই ইকরাম ও এসআই সুশান্ত কুমার পালসহ পুলিশের আরেকটি দল একই সড়কের হিজলবাড়িয়া গ্রামের মধ্যে অবস্থান নেয়। হিন্দা গ্রামের ভেতর থেকে ট্রাকটিকে আটকের চেষ্টা করে পুলিশ। বিপদ বুঝতে পেরে দ্রুত ট্রাকটিকে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে মাদকব্যবসায়ীরা। কিন্তু ট্রাকের একটি চাকা হিজলবাড়িয়া গ্রামের মধ্যে এসে রাস্তার পার্শ্ববর্তী একটি খাদের মধ্যে আটকে যায়। এসময় মাদকব্যবসায়ী মথুরাপুর গ্রামের ফেলা মিয়ার ছেলে জোহা মিয়াসহ দুজন ট্রাক থেকে লাফিয়ে পালিয়ে যায়। ধরা পড়ে ফজলু মিয়া। ট্রাকের কয়েকটি বস্তা থেকে ১ হাজার ৯৯ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করে পুলিশ। জব্দ করা হয় ফেনসিডিল বহনকারী ট্রাকটি (ঢাকা মেট্রো ড ১১-০৪২০)।

গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিয়াজুল ইসলাম জানান, ফেনসিডিলগুলো কুষ্টিয়ার একটি স্থানে নেয়া হচ্ছিলো। কিন্তু পুলিশের তৎপরতায় তা পণ্ড হয়েছে। গ্রেফতারকৃত ফজলু মিয়া এবং পলাতক মাদকব্যবসায়ী জোহাসহ তিনজনের নামে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। বাদী এসআই সুশান্ত কুমার পাল। ওই মামলায় ফজলুকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here