গাংনীর স্বতন্ত্রপ্রার্থী সাবেক এমপি মকবুল হোসেন বহিষ্কার জেলা আওয়ামী লীগের সভায় আরো ৬ নেতাকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত

মেহেরপুর অফিস: মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনে স্বতন্ত্রপ্রার্থী মকবুল হোসেনকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তিনি মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ছিলেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী পার্লামেন্টারি বোর্ডের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে গিয়ে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে অবস্থান না নিয়ে স্বতন্ত্রপ্রার্থী হওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে আওয়ামী লীগ। গতকাল শনিবার দুপুরে জেলা আওয়ামী লীগের জরুরিসভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। একই সভায় ৬ জনকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে তা কার্যকর করার জন্য আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে প্রেরণ করা হচ্ছে। এরা হচ্ছেন- গাংনী উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য গাংনী পৌরমেয়র আহম্মেদ আলী, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক গাংনী উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম শফিকুল আলম, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মকলেছুর রহমান মুকুল, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক শহিদুল শাহ, গাংনী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মোশারফ হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শফি কামাল পলাশ।

মেহেরপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আলহাজ আসকার আলীর সভাপতিত্বে সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মিয়াজান আলী, সহসভাপতি আব্দুস সামাদ বাবলু বিশ্বাস, আব্দুল হালিম, সদর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ মো. গোলাম রসুল, গাংনী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাহিদুজ্জামান খোকন, সাধারণ সম্পাদক এমএ খালেক, সদর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রব বিশ্বাস, জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. ইব্রাহিম শাহীন, সাংগঠনিক সম্পাদক আমাম হোসেন মিলু, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল মান্নান, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক মোল্লাসহ আওয়ামী লীগের সদস্যবৃন্দ। বক্তারা সাবেক এমপি মকবুল হোসেনের তীব্র সমালোচনা করে বলেন, তিনি মনোনয়ন না পেলেই স্বতন্ত্র নির্বাচনে অংশ নেন। তাই দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের দায়ে তিনিসহ তার সাথে অবস্থান করা যারা দলীয় পদে আছেন তাদের বহিষ্কারের দাবি তোলেন। পরে সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক মকবুল হোসেনকে বহিষ্কার এবং বাকিদের বহিষ্কারের সুপারিশ করে কেন্দ্রে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র প্রেরণের সিদ্ধান্তের মধ্যদিয়ে সভা শেষ হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published.