গাংনীর বাহাগুন্দা গ্রামের জুয়ার আসরে হানা : তিন জুয়াড়িসহ ৬টি মোটর সাইকেলসহ আটক

গাংনী প্রতিনিধি: মেহেরপুর গাংনী উপজেলার বাহাগুন্দা গ্রামের আলোচিত জুয়ার আসরে অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। এ সময় তিন জুয়াড়িকে আটক করা হয়েছে। উদ্ধার করা হয়েছে সাত হাজার টাকা ও ছয়টি মোটরসাইকেল। জেলা পুলিশের বিশেষ শাখা ও গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) একটি দল গতকাল সোমবার বিকেলে এ অভিযান চালায়। আটককৃতরা হচ্ছে- বাহাগুন্দা গ্রামের মৃত আছির আলীর ছেলে অভিযুক্ত জুয়াড়ী গোলাম মোস্তফা (৪৮) ও আক্কাস আলীর ছেলে হাসান আলী (২৭) এবং গাংনী উত্তরপাড়ার মেহেদি হাসানের ছেলে কাওছার আহম্মেদ লিটন (৩৫)।

ডিবি সূত্রে জানা গেছে, বেশ কিছুদিন ধরে এলাকার কিছু আলোচিত জুয়াড়ি বাহাগুন্দা গ্রামের একটি আম বাগানে জুয়া খেলছিলো। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলা পুলিশের ডিআই-১ ফারুক হোসেন ও ডিবি ওসি শাহীনুজ্জামান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান পরিচালনা করেন। তবে গ্রাম থেকে কিছুটা দুর্গম স্থানে জুয়ার আসর বসায় পুলিশের অভিযান সহজ ছিলো না। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে জুয়া খেলার সরঞ্জাম ফেলে টাকা নিয়ে দৌঁড়ে পালিয়ে যায় কয়েকজন জুয়াড়ি। তবে পুলিশের হাতে ধরা পড়ে গোলাম মোস্তফা, কাওছার ও লিটন। ঘটনাস্থলের আশেপাশে পড়ে থাকা জুয়াড়িদের ৬টি মোটর সাইকেল ও সাত হাজার টাকা উদ্ধার করে পুলিশ। উদ্ধার হওয়া মোটর সাইকেলগুলোর মধ্যে আটককৃত লিটনের মোটর সাইকেল রয়েছে। বাকি ৫টি মোটর সাইকেলের মালিকানার সূত্র ধরে তাদের চিহ্নিত করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, অভিযানের সময় জুয়া খেলার মোটা অংকের টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় জুয়ার আসরের মালিক। এছাড়াও পালিয়ে যাওয়া অন্যদেরকেও সনাক্ত করা হয়েছে। আটক তিন জন ও পালিয়ে যাওয়া কয়েকজনের নামে গাংনী থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রকাশ্য দিবালোকে বাহাগুন্দার ওই বাগানে কয়েকদিন জুয়া খেলা চলছিলো। এতে বাহাগুন্দাসহ আশেপাশের গ্রামের কয়েকজন জুয়াড়ি নিয়মিত খেলা করতো। তারা জুয়া খেলায় সর্বস্ব হারাতে বসেছে। পরিবারে চলছে চরম অশান্তি। তাই পুলিশের এই অভিযানকে স্বাগত জানিয়েছেন ভুক্তভোগীসহ এলাকার বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। ওই এলাকায় নতুন করে যাতে জুয়ার আসর বসতে না পারে সেদিকে দৃষ্টি রাখার জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে গ্রামবাসী। জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ওসি শাহীনুজ্জামান বলেন, আটক তিনজন ও পলাতক কয়েকজনের নামে গাংনী থানায় মামলা করা হচ্ছে। ওই মামলার আসামি হিসেবে আজ মঙ্গলবার তিনজনকে আদালতে সোপর্দ করবে গাংনী থানা। পলাতক জুয়াড়িদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

মেহেরপুর গাংনী উপজেলার বাহাগুন্দা গ্রামের আলোচিত জুয়ার আসরে সফল অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। এসময় তিন জুয়াড়িকে আটক করা হয়েছে। উদ্ধার করা হয়েছে সাত হাজার টাকা ও ছয়টি মোটরসাইকেল। জেলা পুলিশের বিশেষ শাখা ও গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) একটি দল গতকাল সোমবার বিকেলে এ অভিযান চালায়। আটককৃতরা হচ্ছে- বাহাগুন্দা গ্রামের মৃত আছির আলীর ছেলে অভিযুক্ত জুয়াড়ি গোলাম মোস্তফা (৪৮) ও আক্কাস আলীর ছেলে হাসান আলী (২৭) এবং গাংনী উত্তরপাড়ার মেহেদি হাসানের ছেলে কাওছার আহম্মেদ লিটন (৩৫)।

ডিবি সূত্রে জানা গেছে, বেশ কিছুদিন ধরে এলাকার কিছু আলোচিত জুয়াড়ি বাহাগুন্দা গ্রামের একটি আম বাগানে জুয়া খেলছিলো। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলা পুলিশের ডিআই-১ ফারুক হোসেন ও ডিবি ওসি শাহীনুজ্জামান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান পরিচালনা করেন। তবে গ্রাম থেকে কিছুটা দুর্গম স্থানে জুয়ার আসর বসায় পুলিশের অভিযান সহজ ছিলো না। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে জুয়া খেলার সরঞ্জাম ফেলে টাকা নিয়ে দৌঁড়ে পালিয়ে যায় কয়েকজন জুয়াড়ি। তবে পুলিশের হাতে ধরা পড়ে গোলাম মোস্তফা, কাওছার ও লিটন। ঘটনাস্থলের আশপাশে পড়ে থাকা জুয়াড়িদের ৬টি মোটরসাইকেল ও সাত হাজার টাকা উদ্ধার করে পুলিশ। উদ্ধার হওয়া মোটর সাইকেলগুলোর মধ্যে আটককৃত লিটনের মোটরসাইকেল রয়েছে। বাকি ৫টি মোটর সাইকেলের মালিকানার সূত্র ধরে তাদের চিহ্নিত করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, অভিযানের সময় জুয়া খেলার মোটা অংকের টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় জুয়ার আসরের মালিক। এছাড়াও পালিয়ে যাওয়া অন্যদেরকেও শনাক্ত করা হয়েছে। আটক তিনজন ও পালিয়ে যাওয়া কয়েকজনের নামে গাংনী থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রকাশ্য দিবালোকে বাহাগুন্দার ওই বাগানে কয়েকদিন জুয়া খেলা চলছিলো। এতে বাহাগুন্দাসহ আশেপাশের গ্রামের কয়েকজন জুয়াড়ি নিয়মিত খেলা করতো। তারা জুয়া খেলায় সর্বস্ব হারাতে বসেছে। পরিবারে চলছে চরম অশান্তি। তাই পুলিশের এই অভিযানকে স্বাগত জানিয়েছেন ভুক্তভোগীসহ এলাকার বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। ওই এলাকায় নতুন করে যাতে জুয়ার আসর বসতে না পারে সেদিকে দৃষ্টি রাখার জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে গ্রামবাসী।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ওসি শাহীনুজ্জামান বলেন, আটক তিনজন ও পলাতক কয়েকজনের নামে গাংনী থানায় মামলা করা হচ্ছে। ওই মামলার আসামি হিসেবে আজ মঙ্গলবার তিনজনকে আদালতে সোপর্দ করবে গাংনী থানা। পলাতক জুয়াড়িদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *