গাংনীর দিঘলকান্দিতে পানবরজে ও শালদহে রান্নাঘরে অগ্নিকাণ্ড:চার লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি

 

গাংনী প্রতিনিধি: মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার দিঘলকান্দি গ্রামে পানবরজে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে পানবরজ ভস্মীভূত হয়ে তিন লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। অপরদিকে শালদহ গ্রামের এক কৃষকের রান্নাঘরের চুলার আগুন থেকে বাড়িতে আগুন লাগে। গতকাল শুক্রবার বিকেল চারটার দিকে এ দুটি অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দিঘলকান্দি মাদরাসার পাশের মাঠে ওই গ্রামের এক নারী গমক্ষেতের নাড়ায় আগুন দেয়। একপর্যায়ে আগুন ছড়িয়ে পড়ে গমক্ষেতের পার্শ্ববর্তী পানবরজে। ইয়ার আলী, ফরজ আলী ও আব্দুস সামাদের পানবরজ আগুনে পুড়তে থাকে। খবর পেয়ে মেহেরপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছান। কিন্তু ততোক্ষণে বরজগুলো প্রায় ভস্মীভূত হয়ে যায়। ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা আগুন নেভান। তিনজনের ৬৬ শতক জমির পানবরজ পুড়ে তিন লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানান মেহেরপুর ফায়ার সার্ভিসের সহকারী অফিসার শেখ জাহিদুর রহমান।

এদিকে একই সময়ে শালদহ গ্রামের আশাদুল ইসলাম আশার রান্নাঘরের চুলার আগুন থেকে বাড়িতে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। মেহেরপুর ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়া হয়। কিন্তু একই সময়ে দিঘলকান্দি পানবরজে আগুন লাগায় বিপাকে পড়েন ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা। শেষে চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলা ফায়ার সার্ভিস অফিসের সহায়তা কামনা করেন মেহেরপুর ফায়ার সার্ভিস সহকারী অফিসার। আলমাডাঙ্গা ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগেই স্থানীয়ভাবে আগুন নেভানো হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *