গাংনীর চরমপন্থি হারান অস্ত্র ও গুলিসহ গ্রেফতার

 

 

গাংনী প্রতিনিধি:মেহেরপুর গাংনীর জোড়পুকুরিয়া গ্রামের চাঞ্চল্যকর লাভলু হত্যা মামলার অন্যতম আসামি হারান আলীকে (৩৪) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকালবুধবার দিনগত রাত ২টার দিকে জোড়পুকুরিয়া গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সে বেআইনি চরমপন্থি সংগঠন পাঞ্চাব বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড ও এলাকার ত্রাস বলে জানিয়েছেন গাংনী থানার ওসি। সে জোড়পুকুরিয়া গ্রামের মৃত চাঁন আলীর ছেলে।

গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তারিয়াজুল ইসলাম জানান, লাভলু হত্যাসহ তার নামে চাঁদাবাজি ও বোমাবাজির ঘটনায় বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে। পাঞ্চাব বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড হারান বেশ কিছুদিন পলাতক থেকেসড়ক ডাকাতি, চাঁদাবাজি ও কয়েকটি বাড়িতে ডাকাতি সংঘটিত করে।গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল বুধবার রাতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজবাহার শেখ ও ওসি রিয়াজুল ইসলামের নেতৃত্বে তার বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। এসময় একটি শাটারগান ও এক রাউন্ড গুলিসহ গ্রেফতার করা হয় হারানকে। পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে চরমপন্থি বাহিনীর সদস্য ও তাদের কর্মকাণ্ড সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রদান করেছে হারান। লাভলু হত্যা মামলা ও অস্ত্র আইনসহ দুটি মামলার আসামি হিসেবে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়। বিজ্ঞ আদালতের আদেশে তাকে মেহেরপুর জেলা কারাগারেপ্রেরণ করা হয়েছে বলে গাংনী থানা সূত্রে জানা গেছে। দ্রুত তার রিমান্ডের আবেদন করা হবে বলেও জানান ওসি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *