গাংনীতে সংসদ সদস্যকে স্মারকলিপি : সরকারি কোষাগার থেকে পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা দাবি

গাংনী প্রতিনিধি: বেতন-ভাতা ও পেনশন-গ্রাচুইটি সরকারি কোষাগার থেকে দেয়ার দাবিতে মেহেরপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য মকবুল হোসেনের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছেন গাংনী পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ। গতকাল সোমবার দুপুরে এমপির বাড়িতে এ স্মারকলিপি প্রদান করে সরকারের উচ্চ পর্যায়ে যোগাযোগ করে দাবি বাস্তবায়নের জন্য এমপিকে অনুরোধ করেন তারা।

স্মারকলিপিতে বলা হয়, সেবামূলক প্রতিষ্ঠান হিসেবে পৌরসভা নাগরিক সেবা দিয়ে যাচ্ছে। এর সাথে জড়িত কর্মকর্মর্তা-কর্মচারীর প্রতিকূল পরিবেশের মধ্যেই রাতদিন শ্রম দিয়ে জীবনের মূল্যবান সময় ব্যয় করছেন। কিন্তু মাসের পর মাস বেতন না পেয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে অনাহারে অর্ধাহারে দিন পার হচ্ছে। রিক্তহাতে চাকরি জীবন শেষ হচ্ছে অনেকের। চাকরিরত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করলেও পাওনা অর্থ পেতে বিলম্ব হয়। পরিবারের অসহায় সদস্যরা ঘুরে ঘুরে কয়েক কিস্তিতে কিছু অর্থ পান। দুঃসহ এই মর্মান্তিক অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দীর্ঘদিনের প্রাণের দাবি সরকারি কোষাগার থেকে তাদের বেতন-ভাতাসহ অবসরকালীন সুবিধা (পেনশন-গ্রাচুইটি ইত্যাদি) প্রদান করা হোক। দাবি বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তারা।

স্মারকলিপি প্রদান অনুষ্ঠানে গাংনী পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সামসুদ্দীন, সহকারী প্রকৌশলী শামীম রেজা, উপসহকারী প্রকৌশলী জমিউল ইসলাম ও হুমায়ন কবির, বাংলাদেশ পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারী অ্যাসোসিয়েশন গাংনী উপজেলা সভাপতি জামিরুল ইসলাম টিক্কা, সাধারণ সম্পাদক ইনামুল হক, প্রধান সহকারী আসলাম হোসেন, শামীম, মিলন, জাহিদ, মনি, মফিজ, সাহেদা ও মনিরুল ইসলামসহ সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, দেশের সব পৌরসভার কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের পৌরসভার নিজস্ব আয় থেকে বেতন-ভাতা দেয়া হয়। কর্মকর্তাদের নিয়োগ মন্ত্রণালয় থেকে হলেও বেতন-ভাতা দিতে হয় সংশ্লিষ্ট পৌরসভাকে। অর্থাভাবে অনেক পৌরসভা নিয়মিত বেতন দিতে পারে না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *