গাংনীতে ভারতীয় চোরাই মোটরসাইকেলসহ দুজন গ্রেফতার

গাংনী প্রতিনিধি: ভারতীয় চোরাই মোটরসাইকেলসহ মেহেরপুর গাংনী থানা পুলিশ দুজনকে গ্রেফতার করেছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে গাংনী পৌরসভাধীন চৌগাছা ও শিশিরপাড়া গ্রামে পৃথক দুটি অভিযানে দুজনকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে কুষ্টিয়ার খলিশাকুণ্ডি রাজনগরের খবির মণ্ডলের ছেলে ছাবেন আলী (বর্তমানে চৌগাছার বাসিন্দা) ও শিশিরপাড়া গ্রামের আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে কিবরিয়া হোসেন।
গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আকরাম হোসেন জানান, গত ২৩ জানুয়ারি গাংনী থানার এসআই শঙ্কর কুমার ঘোষ অভিযান চালিয়ে গাংনী বাজারের বাদশা মিয়ার গ্যারেজের সামনে থেকে ভারতীয় চোরাই (টানা) মোটরসাইকেলসহ জিল্লুর রহমান নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেন। অভিযানের সময় একটি মোটরসাইকেল ফেলে পালিয়ে যায় ছাবেন আলী। ওইদিনই পুলিশ গাংনী থানায় ছাবেন আলী ও জিল্লুর রহমানের নামে চোরাচালান বিরোধী আইনে মামলা দায়ের করে। মামলার সূত্র ধরে বৃহস্পতিবার রাতে ছাবেন ও তার সহযোগী কিবরিয়াকে গ্রেফতার করে পুলিশ। দুটি অভিযানে দুটি পালসার, একটি ডিসকভারী ও একটি অ্যাপাচি মোটরসাইকেল উদ্ধার করে পুলিশ। ৪টি মোটরসাইকেলে নম্বর প্লেট রয়েছে। সেখানে ঢাকা, মেহেরপুর, কুষ্টিয়া ও যশোর বিআরটিএ নম্বর ব্যবহার করা হয়েছে।
মোটরসাইকেল চোরাচালান মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গাংনী থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মোক্তার হোসেন জানান, ৪টি মোটরসাইকেলে পৃথক ৪টি নম্বর ব্যবহার করা হয়েছে। যা ভূয়া নম্বর। ভারত থেকে চোরাই পথে এসব মোটরসাইকেল এনে একটি চক্র দীর্ঘদিন ধরে মেহেরপুর জেলার বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করে। যা টানা মোটরসাইকেল নামে পরিচিতি। প্রশাসনের নজর এড়াতে এসব মোটরসাইকেলের নম্বর প্লেটে ভূয়া নম্বর ব্যবহার করা হয়। তবে মামলার প্রয়োজনে সংশ্লিষ্ট বিআরটিএ অফিসে নম্বরগুলো যাচাই করা হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *