গাঁজা বিক্রির সময় ডাকাতিসহ হাফ ডজন মামলার আসামি আলমডাঙ্গার বেলগাছির দুর্ধর্ষ বোমা কালাম আটক

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: আলমডাঙ্গার বেলগাছি গ্রামের ডাকাতিসহ বেশ কয়েকটি মামলার পলাতক আসামি দুর্ধর্ষ বোমা কালামকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। গোয়েন্দা পুলিশের গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে বেলগাছি গ্রামের তারার চায়ের দোকানের ভেতর গাঁজা বিক্রি করার সময় থানা পুলিশের একটি বিশেষ টিম তাকে গ্রেফতার করে।

জানা গেছে, উপজেলার বেলগাছি গ্রামের সাহেব আলীর ছেলে কালাম (৩৬) গতকাল রাতে নিজ গ্রামের বাগানপাড়ার তারার চায়ের দোকানের ভেতর গাঁজা বিক্রি করছিলো। এমন সংবাদ পেয়ে গোয়েন্দা পুলিশের সদস্য ডিএসবি হারুন ও ময়েন এ সংবাদের সত্যতার বিষয়ে খোঁজ নেন। এ তথ্যের সত্যতা পেয়ে দ্রুত আলমডাঙ্গা থানার ওসিকে অবগত করান। রাত সাড়ে ৯টার দিকে থানা অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে সেকেন্ড অফিসার জুয়েল, এএসআই মেজবা সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করেন।

বোমা কালাম দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে সন্ত্রাসী-ডাকাতি ও বোমাবাজির সাথে জড়িত বলে এলাকায় বিশেষভাবে চিহ্নিত। তার বিরুদ্ধে আলমডাঙ্গা থানায় ডাকাতি, বোমাবাজি ও ছিনতাইয়ের হাফডজন মামলা রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। দামুড়হুদা থানায়ও তার বিরুদ্ধে মোটরসাইকেল ছিনতাই ও ডাকাতি মামলা রয়েছে।

গোয়েন্দা পুলিশ ও এলাকাসূত্রে জানা গেছে, কালাম নিজেই বোমা তৈরি করে ও বোমা হামলা চালিয়ে ডাকাতি এবং ছিনতাই করে থাকে। এমনকি আপন মাকেও বোমা মেরে হত্যার অপচেষ্টা চালায় এ কুলাঙ্গার। সৌভাগ্যবশত বোমাটি বিস্ফোরিত হয়নি। তারপর থেকে সে বোমা কালাম হিসেবেই এলাকায় পরিচিত। আলমডাঙ্গা শহরের হাউসপুরের প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতির পর থেকে সে খুব আলোচিত হয়ে ওঠে। প্রায় বছর খানেক আগে সে জেলমুক্ত হয়ে বাড়ি ফিরে নতুন করে ত্রাসের রাজত্ব গড়ে তোলে। পুলিশ আরও জানিয়েছে, জেলমুক্ত হয়ে সে মাদকব্যবসার পাশাপাশি ইটভাটাসহ এলাকায় চাঁদাবাজি, ছিনতাই ও বোমাবাজির সাথে আবারও নিজেকে সম্পৃক্ত করে।  একই গ্রামের তোরাপ ডাকাতসহ কিছু নতুন সহযোগী নিয়ে সে আবারও এলাকা অস্থির করে তুলেছিলো।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *