খালেদাকে ফোন করেননি অমিত শাহ

স্টাফ রিপোর্টার: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাথে টেলিফোনে কোন কথা হয়নি বলে জানিয়েছেন ভারতীয় জনতা দলে (বিজেপি) সভাপতি অমিত শাহ। গতকাল শনিবার এক বেসরকারি টিভি চ্যানেলকে টেলিফোনে এ কথা জানান বিজেপি সভাপতি। খালেদা জিয়াকে ফোন করে আপনি তার স্বাস্থের খোঁজখবর নিয়েছেন কি-না এমন প্রশ্নে অমিত শাহ বলেন, নো এনি কল ফরম আওয়ার সাইড। নো কল। ইটস টোটালি রিউমার, টোটালি রিউমার। অপর এক বেসরকারি টিভি চ্যানেলকেও একই কথা জানিয়ে অমিত শাহ বলেন, দিস ইজ অ্যা ফেইক নিউজ। নো কন্ট্যাক ফরম আওয়ার সাইড। বৃহস্পতিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে দলটির পক্ষ থেকে বলা হয়, বুধবার রাতে অমিত শাহ ফোনে খালেদা জিয়ার সাথের কথা বলেন। এ সময় তিনি খালেদা জিয়ার আশু সুস্থতা কামনা করেন। এরপর থেকেই ফোনালাপ নিয়ে আওয়ামী লীগ-বিএনপি নেতাদের মধ্যে বাদানুবাদ শুরু হয়। শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, অমিত শাহ’র সাথে খালেদা জিয়ার ফোনালাপের খবরটি ভিত্তিহীন। আমি নিজে ভারতীয় দূতাবাসের সাথে কথা বলে নিশ্চিত হয়েছি, বিজেপির সভাপতির পক্ষ থেকে কোনো ফোন খালেদা জিয়াকে করা হয়নি। বিএনপির পক্ষ থেকে দুবার ফোন করা হলেও অমিত শাহের টেলিফোন নষ্ট থাকায় কোনো কথা হয়নি। তবে ফোনালাপ নিয়ে আওয়ামী লীগের মিথ্যাচারের অভিযোগ অস্বীকার করে বিভ্রান্তি সৃষ্টির পাল্টা অভিযোগ এনে মারুফ কামাল খান শুক্রবার রাতে গণমাধ্যমে সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠান। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বিজেপি প্রধান অমিত শাহ সরাসরি টেলিফোন আলাপে দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার কুশলাদি সম্পর্কে অবহিত হয়েছেন। অমিত শাহ কিংবা তার অধীনস্ত সংশ্লিষ্ট কারো কাছ থেকে এর সত্যতা নিরূপণ না করে অজ্ঞাতনামা কূটনৈতিক বা অন্যান্য সূত্রে বরাত দিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টির চেষ্টা খুবই অনভিপ্রেত। প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, প্রতিবেশী দু দেশের দুটি গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক দলের প্রধানের মধ্য টেলিফোন আলাপ প্রত্যাশিত ও স্বাভাবিক ঘটনা এবং এ নিয়ে ভিত্তিহীন দাবির কোনো অবকাশ যেমন নেই তেমনই এ সম্পর্কে বিভ্রান্তি সৃষ্টির অপচেষ্টাও সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যমূলক।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *