খালেদাকেও বান কি-মুনের টেলিফোন

স্টাফ রিপোর্টার: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে টেলিফোনে আলাপের পর সন্ধ্যায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাথে কথা বলেছেন জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি-মুন। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা ৪৫ মিনিটে বান কি-মুন খালেদা জিয়াকে টেলিফোন করেছেন বলে জানান বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, তারা আধা ঘণ্টা কথা বলেছেন। সংবাদ ব্রিফিংয়ে আলোচনার বিষয়গুলো তুলে ধরা হবে। পরে সংবাদ ব্রিফিংয়ে ফখরুল বলেন, জাতিসংঘ মহাসচিবকে বিরোধীদলীয় নেতা বলেছেন সংকট সমাধানে সংলাপ কিংবা আলোচনার বিকল্প নেই। বিএনপি2 (3) যেকোনো ধরনের সংলাপ ও আলোচনার জন্য প্রস্তত রয়েছে। তিনি জাতিসংঘ মহাসচিবকে জানিয়ে দিয়েছেন, আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচনে বিএনপি যাবে না। এর আগে সকাল ১১টায় জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি-মুন কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে। ফখরুল বলেন, জাতিসংঘের মহাসচিব বিরোধীদলীয় নেতাকে জানিয়েছে, বাংলাদেশে তারা একটি সবার কাছে গ্রহণযোগ্য ও সব দলের অংশগ্রহণে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন দেখতে চায়। এজন্য বাংলাদেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি জাতিসংঘ নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে। “জবাবে বিরোধী দলীয় নেতা জাতিসংঘের মহাসচিবকে বলেছেন, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য নির্দলীয় সরকারের কোনো বিকল্প নেই। সেই সাথে একটি শক্তিশালী নির্বাচন কমিশনও জরুরি। তিনি বলেন, জাতিসংঘ মহাসচিব বিরোধী দলীয় নেতাকে বাংলাদেশে বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে তার উদ্বেগের কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, আগামী নির্বাচন যাতে সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ ও সুষ্ঠভাবে হয়, সেজন্য তিনি উদ্যোগ নিয়েছিলেন। কিন্তু সেই প্রচেষ্টা বেশিদূর এগোয়নি বলে তিনি তার উদ্বেগের কথাও বিরোধী দলীয় নেতার কাছে প্রকাশ করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *