কোমলপানীয় ভেবে দু বছরের পুতির মুখে বিষ দিয়েছে দাদি

 

স্টাফ রিপোর্টার: দাদি মাফিয়া খাতুন শখ কোমলপানীয়ের বোতলে থাকা তরল পদার্থ দু বছরের পুতি মিতুর মুখে তুলে দিয়ে এখন হায় হায় করছেন। তিনি যখন শুনেছেন ওই বোতলে আরসি নয়, ছিলো ভুট্টায় দেয়া কড়া বিষ, তখনই তিনি হায় হায় করে বুক চাপড়ে কাঁদছেন। আর বাপ মরা দু বছরের পুতি মিতুকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করানো হয়েছে। চিকিৎসা চলছে।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের বেগমপুর ইউনিয়নের ডিহি কৃষ্ণপুরের ওমর আলী দীর্ঘদিন ক্যান্সার আক্রান্ত হয়ে ৭ মাস আগে মারা গেছেন। তার রেখে যাওয়া একমাত্র মেয়ে মিতুর বয়স এখন দু বছর। দাদিই মিতুকে আগলে রাখেন। গতকাল সন্ধ্যায় মিতুর এক চাচা ভুট্টায় দেয়া বিষ নিয়ে বাড়ির উঠোনে রেখে অন্য কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। আর উঠোনে কোমলপানীয়ের বোতল দেখে দাবি তা হাতে নিয়ে আদর করে পুতি মিতুর মুখে এক মুটকি তুলে দেন। আর তাতেই মিতুর অবস্থা কাহিল হয়ে পড়ে। বোমির সাথে বিষের গন্ধ দেখে চাচা ছুটে সে দ্রুত তাকে হাসপাতালে নেয়। গতকাল শনিবার এ ঘটনা ঘটে। চিকিৎসার এক পর্যায়ে মিতুর শারীরিক অবস্থার উন্নতি ঘটতে শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। আর দাদি কান্নায় ভেঙে পড়ছেন। তিনি হায় হায় কি হলো, নিজে হাতে কি করলাম বলে বুক চাপড়েও যেনো শান্তনা খুঁজে পাচ্ছে না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *