কেরুজ আবাসিক এলাকায় কোয়ার্টার নিয়ে বিরোধ

রক্তাক্ত জখম মিলপাড়ার খালেক : পাঁচজনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

 

দর্শনা অফিস: কেরুজ চিনিকলের শ্রমিকদের আবাসিক কোয়ার্টার নিয়ে বিরোধ সৃষ্টি হয়েছে। এ বিরোধে এক শ্রমিকের বাড়ি ভাঙচুর ও মারধর করে রক্তাক্ত জখমের অভিযোগ উঠেছে। ৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন আহত শ্রমিক মালেক। কেরুজ মিলপাড়ার ইক্ষু বিভাগের ওয়েব্রিজ হেলপার আ. মালেকের নামে ২টি কোয়ার্টার বরাদ্দ নেয়া হয়েছে। মালেকের বরাদ্দকৃত মাল্টিপুল ৫২নং কোয়ার্টারের সীমানায় বেড়া দেয়াকে কেন্দ্র করে কেরুজ শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমানের সাথে কথা কাটাকাটি হয় মালেকের।

মালেকের অভিযোগে জানা গেছে, গতকাল রোববার সকাল ৮টার দিকে শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমানের সাথে দ্বন্দ্ব হওয়ার ঘন্টা খানেকের মাথায় ৫/৬ জন হামলা চালায় মালেকের বাসায়। হামলাকারীরা বাড়িঘর ভাঙচুর করে। সকাল ১০টার দিকে কেরুজ আনন্দবাজার মন্দিরের সামনে হামলাকারীরা মালেককে মারধর করে রক্তাক্ত জখম করেছে। এ সময় আরো আহত হয়েছেন শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সাবেক যুগ্মসম্পাদক হাবিবুর রহমান হবি। এ ঘটনায় আ. মালেক গতকালই দর্শনা বাসস্ট্যান্ডপাড়ার আনোয়ার, কেরুজ মিলপাড়ার বকুল, আরুক, দর্শনা হঠাতপাড়ার বিল্লাল ও আমিরুলের বিরুদ্ধে দামুড়হুদা থানায় লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন। এদিকে আহত শ্রমিককে দেখতে সংগঠনের নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে গতকালই রাত সাড়ে ৮টার দিকে তার বাসায় যান কেরুজ শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম প্রিন্স। তিনি ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবি করেছেন। এ ব্যাপারে ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান বলেছেন, মালেক অন্য একজন শ্রমিককে বঞ্চিত করে একাই দুটি কোয়ার্টার দখলে রেখেছিলো। শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দকে সাথে নিয়ে মালেককে একাধিক কোয়ার্টার না নেয়ার জন্য বোঝাতে গেলে সে ও তার ছেলে আমাদের ওপর মারমুখি আচরণ করে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *