কালো দাগ লেগে বরজের পর বরজ উজাড় হয়ে যাচ্ছে

চুয়াডাঙ্গার বিভিন্ন এলাকায় পানচাষিরা পানবরজ নিয়ে পড়েছে বিপাকে

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গার বিভিন্ন গ্রামের চাষিদের পানবরজ নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। দীর্ঘদিন ধরে এ অবস্থা চলতে থাকলেও কৃষি অফিসগুলো কোনো কার্যকর ব্যবস্থা নিচ্ছে না। একের পর এক পানবরজ মরে যাওয়ায় পনচাষিরা হতাশ হয়ে পড়েছে।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা আলমডাঙ্গা উপজেলায় সবচে বেশি পানের আবাদ হয়। এখানে হাজার হাজার পানচাষি তাদের পানবরজের ওপর নির্ভরশীল। কিন্তু বেশ কয়েক বছর ধরে একের পর পান বরজ মরে যাওয়ায় চাষিরা পড়েছেন বেকায়দায়। সূত্র জানায়, আলমডাঙ্গার কৃষ্ণপুর, পারকৃষ্ণপুর, গোয়ালবাড়ি, নতিডাঙ্গা, জুগিরহুদা, লক্ষ্মীপুর, রামচন্দ্রপুর, ফুল বগাদী, বড়গাংনীসহ আশপাশ গ্রামের পানবরজ টিকিয়ে রাখতে পারছে না। তাদের পানের গায়ে প্রথমে কালো স্পট পড়ছে। এরপর লতায় পচন বা মড়ক লেগে গাছ মরে যাচ্ছে। এভাবে বরজের পর বরজ উজাড় হয়ে যাচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্ত চাষিরা কী করবে ভেবে পাচ্ছে না। কেন এ রোগ হচ্ছে, আর এ রোগের নামই বা কী তা কোনো চাষিই জানেন না।

অন্যদিকে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার হাজরাহাটি, তালতলা, কুলচারা, আকন্দবাড়িয়া ও চুয়াডাঙ্গার ইসলামপাড়ার চাষিরাও এ রোগের হাত থেকে রক্ষা পাচ্ছে না। ইসলামপাড়ার আশাদুল, সেকেন্দার, কুলচারার জিনারুল, আসাদুল, জাকির, আব্দুল খয়েরসহ অসংখ্য পানচাষি অভিযোগ করে বলেন, দীর্ঘদিন ধরে পানবরজ নিয়ে আমরা সমস্যার মধ্যে আছি। কিন্তু কৃষি অফিস আমাদের কার্যকর কোনো পরামর্শ দিচ্ছে না। ইতঃপূর্বে সংশ্লিষ্ট উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের পরামর্শ নিয়েও কোনো কাজ হয়নি। তাদেরকে সময় মতো পাওয়া যায় না। আবার তারা বরজে ঢুকেও দেখে না। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে বলে ভুক্ত পানচাষিরা আশা করে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *