কার্পাসডাঙ্গা বাজারে ভেজাল গুঁড়ো মসলা বিক্রি করাকে কেন্দ্র করে তুলকালাম কাণ্ড

 

স্টাফ রিপোর্টার: দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গা বাজারে ভেজাল ধনেগুঁড়ো মসলা বিক্রি করাকে কেন্দ্র করে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। ভেজাল গুঁড়ো মসলা বিক্রি করতে বাধা দেয়ায় এক দোকানির হাতে মারপিটের শিকার হয়েছেন বাজার কমিটির দফতর ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মো. সালাউদ্দিন।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা ভালাইপুর থেকে তৈরি কেয়া ধনে গুঁড়ো মসলা যার কর্ণধার মো. জিনারুল ইসলাম। এ মসলাটি কার্পাসডাঙ্গার বাজারে বিভিন্ন দোকানে ৬০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করেছে অথচ বর্তমান ভালো ধনে গুঁড়ো মসলা বিক্রি হয় ২০০ টাকা কেজি দরে। গ্রাহকদের অভিযোগে বাজার কমিটি বাজারের বিভিন্ন দোকান থেকে ভেজাল গুঁড়ো মসলা জব্দ করে। কিন্তু বাজারের সুমন স্টোরের মালিক মো. রফিক গুঁড়ো মসলা দিতে অসম্মত হন। কমিটির সদস্যদের সাথে কথাকাটাকাটি হয় রফিকের। এক পর্যায়ে রফিক ও তার ছেলে বাজার কমিটির দফতর ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মো. সালাউদ্দিকে মারপিট করতে শুরু করেন। স্থানীয় লোকজন ও বাজার কমিটির সদস্যরা মো. সালাউদ্দিকে উদ্ধার করেন। বাজার কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. মারুফ শাহ’রকাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভেজাল ধনে গুঁড়ো মসলা বাজারে এলে আমরা জানার পর সেগুলো বিভিন্ন দোকান থেকে জব্দ করি। এরপর রফিকের কাছে গিয়ে বলি মসলাগুলো আমাদের কাছে দাও, যারা বিক্রি করতে এসেছিলো তাদেরকে ডেকে ফেরত দিয়ে দেবো। কিন্তু রফিক না দিয়ে আমাদের ওপর চড়াও হন। এক পর্যায়ে বাজার কমিটির দফতর ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মো. সালাউদ্দিকে আমার সামনে মারপিট করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *