কাথুলী-নিমতলা সড়কের নির্জন স্থান থেকে ৭ কিশোর পাকড়াও : পিটুনি

 

মোমিনপুর প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের কাথুলী-নিমতলা সড়কের মাঠে অবস্থানকালে ৭ কিশোরকে ধরে ৬ কিশোরকে পিটুনির পর ছেড়ে দেয়া হয়। এক কিশোর কৌশলে সটকে পড়ায় সে পিটুনি থেকে রক্ষা পায়। ৭ কিশোর নির্জন স্থানে দাঁড়িয়ে ছিনতাইয়ের প্রস্তুতি নিচ্ছে সন্দেহে স্থানীয়রা ধরে পিটুনির পর তাদের অভিভাবকদের জিম্মায় ছেড়ে দেয়। ঘটনাটি ঘটে পরশু বৃহস্পতিবার রাতে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মুন্সি আসাদুজ্জামানের উপস্থিতিতে কাথুলী মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে আইনশৃঙ্খলা বৈঠকে তিন যুবক হাজির হয়ে তাদের অপরাধ স্বীকার করে। অপ্রাপ্ত বয়স হওয়ায় তাদেরকে সুধরে নেয়ার জন্য অভিভাবকদের সতর্ক করা হয়। একই সাথে মুচলেকা নেয়া হয়। আটককৃত ৭ কিশোর হলো- কাথুলীর হাসান আলীর ছেলে রানা, মহির মালিতার ছেলে ইমরান, ইসমাইল হোসেনের ছেলে জাহিদ, বগার ছেলে স্বপন, মাছেরদাড়ি গ্রামের রমজান আলীর ছেলে রনি ও আছের আলীর ছেলে সাগর। ধরা পড়ার পর কৌশলে সটকে পড়ে কাথুলীর জাহাঙ্গীরের ছেলে টিপু। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন মোমিনপুর ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক জোয়ার্দ্দার। বৈঠকে ইমরান, রানা ও রনি উপস্থিত হলেও বাকিরা উপস্থিত হয়নি।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *