কলাগাছ ফেলে মোটরসাইকেল থামিয়ে ছিনতাই : পুলিশ দেখে ককটেল ফাটিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ

 

জীবননগরের আন্দুলবাড়িয়া-সরোজগঞ্জ সড়কের বহুল আলোচিত বেলাতলা রেলগেটের অদূরে সন্ধ্যা রাতে তা-ব

 

আন্দুলবাড়িয়া প্রতিনিধি: জীবননগরের আন্দুলবাড়িয়া-সরোজগজ্ঞ সড়কে বেলতলা রেলগেটের অদূরে আতাতলা নামক স্থানে ছিনতাই সংঘটিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা রাতে ছিনতাইকারী চক্র সড়কে কলাগাছ ফেলে মোটরসাইকেল চালককে মারধোর করে নগদ টাকা ও মালামাল ছিনিয়ে নিয়েছে। ছিনতাইকারী চক্র পুলিশ ও পথচারীদের আসা দেখে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে সটকে পড়ে।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার তিতুদহ ইউনিয়নের খাসপাড়া গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে আসাদ হোসেন। তিনি তার ভাই আন্দুলবাড়িয়া বাজারের সার ব্যবসায়ী ইসমাইল হোসেনর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কাজকর্ম  শেষে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফিরছিলেন। পথিমধ্যে আতাতলা নামকস্থানে পৌঁছুলে ৪-৫ জন ছিনতাইকারী সড়কে কলাগাছ ফেলে মোটরসাইকেল গতিরোধ করে। কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগে ছিনতাইকারীচক্র দেশীয় ধারালো অস্ত্রের মুখে তাকে জিম্মি করে। মারধোর করে আতঙ্ক সৃষ্টি করে নগদ ৩ হাজার টাকা ও নিত্য প্রয়োজনীয় মালামাল ছিনিয়ে নেয়। মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করাকালে দু’ অভিমুখ থেকে কয়েকটি মোটরসাইকেল আসা দেখে পুলিশ মনে করে ছিনতাইকারীদল ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নাবাল মাঠের দিকে সটকে পড়ে। পুলিশ ও জনতা মাঠে তল্লাশী অভিযান চালিয়ে ছিনতাইকারী চক্রের কোন সদস্যকে ধরতে পারেনি।

এব্যাপারে শাহাপুর ক্যাম্প ইনচার্জ এসআই ওয়ালিয়ার রহমান বলছেন, পুলিশ ছিনতাই চেষ্টা ব্যর্থ করে দিয়েছে। ছিনতাইকারী চক্র অবস্থা বেগিতক দেখে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে পালিয়ে গেছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *