একই রাতে দামুড়হুদার দর্শনায় দুটি স্থানে ছিনতাইকারীদের তাণ্ডব

আধঘণ্টার ব্যবধানে দুটি ছিনতাই : সন্দেহভাজন গ্রেফতার

দর্শনা অফিস: একই রাতে দর্শনার দুটি স্থানে ছিনতাইকারীরা তাণ্ডব চালিয়েছে। মাত্র আধঘণ্টার ব্যবধানে পৃথক দুটি ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। ছিনতাইকারীচক্রের সদস্য সন্দেহে পুলিশ গ্রেফতার করেছে একজনকে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

জানা গেছে, গত পরশু শনিবার রাত ৩টার দিকে সীমান্ত এক্সপ্রেস ট্রেন থেকে জনৈক যাত্রী দর্শনা হল্টস্টেশনে নামেন। হল্টস্টেশন থেকে ভ্যানযোগে দর্শনা কেরুজ হাসপাতালপাড়ায় আত্মীয় বাড়িতে যাচ্ছিলেন ওই ব্যক্তি। এ সময় তিনি কেরুজ হাসপাতালের সামনে পৌঁছুলে ৪/৫ জনের ধারালো অস্ত্রধারী ছিনতাইকারীচক্র তার গতিরোধ করে। ছিনিয়ে নেয় নগদ সাড়ে ৩ হাজার টাকা, একটি মোবাইলসেট। ছিনতাইকারীরা ওই ব্যক্তির কাছে থাকা দু প্যাকেট মিষ্টি জোরপূর্বক খেয়ে ফেলে। এতে বাধা দেয়ার চেষ্টা করলে ছিনতাইকারীদের হাতে মার খেতে হয় ওই ব্যক্তিকে।

এদিকে মাত্র আধঘণ্টার মাথায় রাত সাড়ে ৩টার দিকে দর্শনা শ্যামপুর জোড়াবটতলা নামকস্থানে ঘটে আরো একটি ছিনতাইয়ের ঘটনা। শ্যামপুরের জয়নুল ইসলাম কচির ছেলে রাজিবুল ইসলাম তপু ঢাকার উদ্দেশে যাওয়ার জন্য দর্শনা রেলবাজারে যাচ্ছিলেন। জোড়া বটতলা নামকস্থানে পৌঁছুলে ৪/৫ জনের ধারালো অস্ত্রধারী ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে তপু। ছিনতাইকারীরা অস্ত্রের মুখে তপুর কাছ থেকে ছিনিয়ে নেয় নগদ ২ হাজার টাকা ও ২টি মোবাইলফোন। পৃথক দুটি ছিনতাইয়ের ঘটনা একই ছিনতাইকারীচক্র ঘটিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে গতকাল রোববার সন্ধ্যায় দর্শনা আইসি পুলিশ ছিনতাইয়ের ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে শ্যামপুর জোড়া বটতলার হায়দার আলী নামের একজনকে গ্রেফতার করেছে। পুলিশ বলেছে, হায়দার আলী ছিনতাইকারীচক্রের সদস্য। তাকে গ্রেফতারের পর থেকে করা হচ্ছে জিজ্ঞাসাবাদ।

Leave a comment

Your email address will not be published.