এইচএম এরশাদ

স্টাফ রিপোর্টার: জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদকে আটক করা হয়েছে। দলীয় একাধিক নেতা সংবাদ মাধ্যমকে এ তথ্য জানালেও র‌্যাব বলেছ, এইচএম এরশাদ অসুস্থ্য বোধ করায় তাকে সিএমএইচে নেয়া হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ১১টা ৪০ মিনিটে তাকে বারিধারার প্রেসিডেন্ট পার্ক বাসভবন থেকে পেছনের দরজা দিয়ে পুলিশ নিতে গেলে উপস্থিত নেতাকর্মীরা বাধা দেন। তাদের বাধা উপেক্ষা কেরে এরশাদকে নিয়ে যায় র‌্যাব-পুলিশ। বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

জানা গেছে, দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন থেকে সরে আসার ঘোষণা দিয়ে বিপদে ছিলেন এরশাদ। তার সাতজন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীকে সরকার থেকে পদত্যাগ করে সকল প্রার্থীকে মনোনয়ন প্রত্যাহারের নির্দেশ দেন এরশাদ। তিনি নিজেও মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেন। তবে জিএম কাদের মনোনয়ন প্রত্যাহার করলেও রওশন এরশাদ বৃহস্পতিবার পর্যন্ত মনোনয়ন প্রত্যাহার করেননি। রাতে আসন ভাগাভাগি বিষয়ে আলোচনার জন্য প্রধানমন্ত্রীর সাথে গণভবনে বৈঠকও করেন রওশন এরশাদ। এ সময় তার সাথে জাপার দু নেতা জিয়াউদ্দিন বাবলু এবং আনিসুল ইসলাম মাহমুদ উপস্থিত ছিলেন। যদিও এ দুজন নেতাকে গত দু সপ্তা যাবত এরশাদের সাথে দেখা যায়নি। একটি সূত্র জানায়, জাপাকে নির্বাচনে নিতেই সরকার এরশাদকে গ্রেফতার করেছে। সারাদেশ থেকে জাতীয় পার্টির শতাধিক প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছে। ইতোমধ্যে জাতীয় পার্টিকে ৬০টি আসন দেয়া হবে বলে আশ্বাসও দিয়েছে সরকার।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *