উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন প্রযুক্তিযুক্ত গোয়েন্দা যন্ত্রপাতি কেনার পলিকল্পনা

 

স্টাফ রিপোর্টার: সরকার উচ্চ প্রযুক্তি সম্পন্ন গোয়েন্দা যন্ত্রপাতি কিনতে যাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি, ইটালি, সুইজারল্যান্ড, চিন প্রভৃতি দেশ থেকে এসব যন্ত্রপাতি কেনা হবে। এরমধ্যে রয়েছে ভেরিয়েন্ট সিস্টেমস, এসএস ৮, আরসিএস, ট্রোভিকর, নিউ সফট, ইউটিম্যাকো, ইনোভেসিও। যুক্তরাষ্ট্র থেকে কেনা হবে ভেরিয়েন্ট সিস্টেমস এবং এসএস ৮। জার্মানি থেকে ট্রোভিকর ও ইউটিম্যাকো, ইটালি থেকে আরসিএস, সুইজারল্যান্ড থেকে নিউ সফট এবং চিন থেকে কেনা হবে ইনোভেসিও। এর জন্য সম্ভাব্য ২০০ কোটি টাকা ব্যয় হবে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীন ন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন মনিটরিং সেন্টারের (এনটিএমসি) কার্যক্রমকে আরো শক্তিশালী করার জন্য এসব যন্ত্রপাতি ব্যবহার করা হবে। এসবের মাধ্যমে যেকোনো টেলিযোগাযোগ সেবা ব্যবহারকারীর প্রেরিত বার্তা, কথোপকথন প্রতিহত, রেকর্ড ধারণ বা তৎসম্পর্কিত তথ্যাদি আরো কার্যকরভাবে সংগ্রহ করা যাবে।

উল্লেখ্য, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে ন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন মনিটরিং সেন্টারের (এনটিএমসি) কার্যক্রম শুরু হয় ২০১৪ সালে। নতুন যন্ত্রপাতি কেনার ব্যাপারে বলা হয়েছে যে, এনটিএমসি কর্তৃক ব্যবহৃত বর্তমান মনিটরিং সিস্টেমটির আয়ুষ্কাল শেষ হয়ে গেছে। এছাড়া বিরাজমান অত্যাধুনিক যোগাযোগ ব্যবস্থার সকল মাধ্যমকে নিয়ন্ত্রণের পর্যাপ্ত সুবিধা বর্তমান সিস্টেমে নেই। তাই নতুন সিস্টেম কেনার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। নতুন যেসব যন্ত্রপাতি কেনার প্রস্তাব করা হয়েছে, তাতে এ ধরনের সকল আধুনিক সুবিধা থাকবে।

এসব যন্ত্রপাতি কেনার ক্ষেত্রে ক্রয় নীতিমালা অনুসরণ অর্থাৎ ওপেন টেন্ডার আহ্বান করা হবে না। আন্তর্জাতিক বাজার থেকে সরাসরি কেনা হবে। গোপনীয়তা রক্ষা করার স্বার্থেই এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। ক্রয় নীতিমালা অনুসরণ না করে সরাসরি কেনার ব্যাপারে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির অনুমতি চাওয়া হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *