আলমডাঙ্গা মাজহাদের সেই বাবু ডাকাতি মামলায় পুলিশি রিমান্ডে

অস্ত্র সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদেই বেরিয়ে আসছে হাসান হত্যার তথ্য 

 

স্টাফ রিপোর্টার: মাজহাদের সেই বাবুকে রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। দু দিনের রিমান্ডে নিয়ে গতকাল রোববার থেকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়েছে। প্রথম দিনেই সে চুয়াডাঙ্গা ফার্মপাড়ার হাসান হত্যার বিষয়ে বেশ কিছু তথ্য দিয়েছে। পুলিশ তার স্বীকারোক্তিতে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধারের প্রক্রিয়া করছে বলে নির্ভরশীলসূত্র জানিয়েছে। তবে পুলিশ মামলার তদন্তের স্বার্থে কঠোর গোপনীয়তা রক্ষা করছে।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের ফার্মপাড়ার বদর উদ্দীনের ছেলে হাসানকে সাতগাড়ি-কুলচারার মধ্যবর্তী ক্যানালের ধারে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে ছিনিয়ে নেয়া হয় মোটরসাইকেল। গত ১৯ ফেব্রুয়ারি রাতে এ ঘটনা ঘটে। পরদিন উদ্ধার করা হয় লাশ। লাশ উদ্ধারের পর থেকেই আলমডাঙ্গা উপজেলার মাজহাদ গ্রামের মিজারুল ইসলামের ছেলে বাবুকে খুঁজতে শুরু করে পুলিশ। মোবাইলফোনে এ বাবুই ফার্মপাড়ার হাসানকে ডেকে নেয়। তাকে ধরতে না পারলেও চুয়াডাঙ্গা মুক্তিপাড়ার মিলনকে গ্রেফতার করা হয়। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতেই ঝিনাইদহ জেলা শহর থেকে মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করা হয়। অপরদিকে বাবু উচ্চ আদালত থেকে অন্তর্বর্তীকালীন জামিন লাভ করে। গত ৩১ অক্টোবর বাবু সংশ্লিষ্ট মামলার  চুয়াডাঙ্গার আদালতে আত্মসমর্পণ করে। বিজ্ঞ আদালত জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে প্রেরণের আদেশ দেন। অপরদিকে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশ একটি ডাকাতি মামলায় তাকে শ্যোন অ্যারেস্ট দেখিয়ে রিমান্ডের আবেদন জানায়। বিজ্ঞ আদালত দু দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। গতকাল রোববার তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশের হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়। সূত্র বলেছে, বাবুর নিকট আগ্নেয়াস্ত্র থাকার বিষয়ে পুলিশি জোর জিজ্ঞাসাবাদের সময় সে ফার্মপাড়ার হাসান হত্যার বিষয় বেশ কিছু তথ্য দিয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ অব্যাহত রয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *