আলমডাঙ্গা বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ১১ হাজার টাকা জরিমানা আদায়

 

 

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: আলমডাঙ্গা ফলবাজার ও লালব্রিজ মোড়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে ১১ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। গতকাল শনিবার ৪টি হোটেল ও ১টি ফলের দোকানে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। হোটেলের অপরিচ্ছন্ন পরিবেশ,মিষ্টির তৈরির ছানায় ও ফলে ফরমালিন মেশানোর অপরাধের প্রমাণ পেয়ে আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সহকারী কমিশনার ভূমি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

জানাগেছে, আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ শাহিনুজ্জামান গতকাল শনিবার ১১টার দিকে ফরমালিনবিরোধী অভিযান শুরু করেন। প্রথমে তিনি মাছের বাজারে অভিযান চালান। মাছ বাজারে কোনো ফরমালিনের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি।এরপর তিনি আলমডাঙ্গা ফল বাজারে অভিযান চালালে শাহীন ফল স্টোরে চেরি ফলে ফরমালিনের অস্তিত্ব পান। ফল স্টোরের মালিক আব্দুল আজিজকে ১ হাজার ৫শ টাকা জরিমানা আদায় করেন। তহবাজারে আমজাতের খাবার হোটেলে অপরিচ্ছন্ন পরিবেশ ও বাসিখাবার বিক্রির দায়ে মালিক রিপন হোসেনকে ১ হাজার টাকা জরিমানা করেন। পশুহাট লালব্রিজ মোড়ে রফিক হোটেলে অপরিচ্ছন্ন পরিবেশ ও নষ্ট মিষ্টি রাখার দায়ে মালিক রফিককে ১ হাজার টাকা জরিমানা করেন। একই স্থানে আল্লাহর দান হোটেলে অভিযান চালিয়ে মিষ্টির তৈরির ছানা পরীক্ষা করে ফরমালিনের অস্তিত্ব পাওয়া যায়। মিষ্টি তৈরির ছানায় ফরমালিনের অস্তিত্ব পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে হোটেল মালিক নিলুকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ওই সময় ফরমালিন মেশানো ছানা নষ্ট করে দেয়া হয়েছে। এর পাশে মোবারেক মিষ্টান্ন ভাণ্ডারে অভিযানে মিষ্টির তৈরির ছানা ও জিলাপি পরীক্ষা করে ফরমালিনের অস্তিত্ব পাওয়া যায়। মিষ্টিতে ফরমালিনের অস্তিত্ব পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে হোটেল মালিক শরিফকে ২ হাজার ৫শ টাকা জরিমানা করা হয়। ওই সময় ফরমালিন মেশানো ছানা ও জিলাপি নষ্ট করে দেয়া হয়েছে। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা সময় সাথে ছিলেন মৎস্য অফিসার শহিদুল ইসলাম, আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম, মৎস্য সম্প্রসারণ অফিসার আব্দুস সাত্তার, এসআই জিয়াউর রহমানসহ সঙ্গীয় ফোর্স।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *