আলমডাঙ্গায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে দু মাদকব্যবসায়ীর কারাদণ্ড

 

আলমডাঙ্গা ব্যরো: আলমডাঙ্গা রেলস্টেশনে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর পৃথক অভিযান চালিয়ে ৩ অ্যাম্পুল প্যাথোডিন ইনজেকশনসহ চুয়াডাঙ্গার মাদকব্যবসায়ী জালাল ও ৪শ গ্রাম গাঁজাসহ জোড়গাছার মিনিকে আটক করেছে। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে জালাল ও মিনিকে ৬ মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেয়া হয়। গতকাল রোববার বিকেলে রেলস্টেশনের ওপর বসে প্যাথোডিন ইনজেকশন বিক্রির সময় এবং জোড়গাছা গ্রামে মিনির বাড়িতে তল্লাশি করে ৪শ গ্রাম গাঁজাসহ আটক করে। পরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আসিফুর রহমান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা মাধ্যমে ৬ মাস করে কারাদণ্ডাদেশ প্রদান করেন।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা রেলপাড়ার আলতাব হোসের ছেলে জালাল (৪২) দীর্ঘদিন ধরে মাদকব্যবসা করে আসছে। জালাল চুয়াডাঙ্গাসহ আশপাশ শহরের পাইকারি ও খুচরা মাদক বিক্রি করে। সে প্যাথোডিন, হেরোইন, ফেনসিডিলসহ বিভিন্ন মাদকদ্রব্য বিক্রি করে। গতকাল আলমডাঙ্গা রেলস্টেশনে বসে প্যাথোডিন বিক্রিকালে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিদর্শক মিলন কুমার মুখার্জি নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে জালালকে আটক করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সহকারী কমিশনারের (ভূমি) নিকট নিয়ে যায়। পরে উপজেলার জোড়গাছা গ্রামের নূর মোহাম্মদের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তার স্ত্রী মিনিকে ৪ গ্রাম গাঁজাসহ আটক করে। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আসিফুর রহমান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে জালাল ও মিনিকে ৬ মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ডাদেশ প্রদান করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *