আলমডাঙ্গায় প্রতারণা করে বিকাশের মাধ্যমে প্রায় ৩৪ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এক প্রতারক

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: বিকাশে ৫ হাজার টাকা নিয়ে ১৫ হাজার টাকার ভুয়া ম্যাসেজ দিয়ে আলমডাঙ্গার আরআরএফ সংস্থার মাঠকর্মীর স্ত্রীর নিকট থেকে ৩৩ হাজার ৬শ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এক প্রতারক। গত শনিবার বিকেলে ওই মাঠকর্মীর স্ত্রী টাকা পাঠানোর পর ওই বিকাশ নম্বর বন্ধ পেয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন।
জানা গেছে, আলমডাঙ্গার আরআরএফ সংস্থায় সাতক্ষীরার বজলুর রহমানের ছেলে চাকরি করেন। তিনি স্টেশনপাড়ায় ভাড়ায় বসবাস করেন। গতকাল শনিবার বিকেলে তার স্ত্রী শান্তা খাতুনের মোবাইলে ০১৭৪৯-৮৫১৯৯২ নম্বর থেকে কল করে জানানো হয় আপনি দীর্ঘদিন জিপি নম্বর ব্যবহার করে আপনি পুরস্কার পেয়েছেন। ৫ হাজার টাকা বিকাশে পাঠালে ১৫ হাজার টাকা পাবেন। শান্তা খাতুন ওই প্রতারকের প্রলোভনে পড়ে রাজি হলে তাকে ০১৭০৭-৬৬৯৮৭৯ এই নম্বরে বিকাশ করতে বলে। তিনি এক দোকানে গিয়ে ৫ হাজার টাকা পাঠানোর পর তার নম্বরে ১৫ হাজার টাকার একটি ভুয়া ম্যাসেজ আসে। পরে আবারও ফোন করে জানায়, ২৮ হাজার ৬শ টাকা পাঠালে ২ লাখ টাকা পাওয়া যাবে। তবে একই বিকাশ থেকে না পাঠিয়ে অন্য দোকানে যেতে বলে। লোভে পড়ে শান্তা খাতুন অন্য আরেক বিকাশ এজেন্টের কাছে গিয়ে প্রথমে ১৫ হাজার টাকা পাঠান। দোকানদার টাকা চাইলে তিনি জানান, আরও ১৩ হাজার ৬শ টাকা পাঠানোর পর দেবেন বলে জানালে দোকানদার আরও ১৩ হাজার ৬শ টাকা পাঠান। টাকা পাওয়ার পর প্রতারকচক্র তাদের মোবইলফোন বন্ধ করে দেয়। এদিকে দোকানদারকে টাকার দিতে না পেরে শান্তা খাতুন বিপাকে পড়েন। পরে তার স্বামী গিয়ে টাকা পরিশোধ করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *