আলমডাঙ্গায় তিন দিন ধরে আটকে রেখে স্কুলছাত্রী ধর্ষণ : এক ধর্ষক গ্রেফতার

 

স্টাফ রিপোর্টার: তিন দিন ধরে আটকে রেখে ধর্ষণ করা হয়েছে আলমডাঙ্গার বলরামপুর গ্রামের এক স্কুলছাত্রীকে। এ ঘটনায় দু ধর্ষণকারী পালিয়ে গেলেও আরেক ধর্ষক শ্যামপুর গ্রামের আবুল কাশেমকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। স্কুলছাত্রীর ডাক্তারি পরীক্ষা গতকাল সম্পন্ন হয়েছে। আবুল কাশেমকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

সূত্র জানায়, চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার কালিদাসপুর ইউনিয়নের বলরামপুর গ্রামের দরিদ্র দিনমজুরের কন্যা নবম শ্রেণির ছাত্রীকে (১৪) গত বুধবার বোনের বাড়ি ওসমানপুরে যাওয়ার সময় হারদী তিন রাস্তার মোড় থেকে তুলে নিয়ে যায় তিন বন্ধু। তারা হলো আলমডাঙ্গা শেখপাড়ার রহমানের ছেলে হাসিবুল, শ্যামপুরের আতিয়ার রহমানের ছেলে আবুল কাশেম ও হাটবোলিয়ার যুবক মোস্তাক। এরা স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে শ্যামপুরের আবুল কাশেমের বাড়িতে রাখে। সেখানে তিন দিন আটকে রেখে তিন বন্ধু পালাক্রমে উপর্যুপরি ধর্ষণ করে। স্কুলছাত্রীর পিতা গত বৃহস্পতিবার আলমডাঙ্গা থানায় কন্যা অপহরণের মামলা করেন। এরই এক পর্যায়ে গতকাল শনিবার আলমডাঙ্গা লালব্রিজ এলাকা থেকে পুলিশ অভিযুক্ত ধর্ষক আবুল কাশেমকে গ্রেফতার করে। একই সাথে অপহৃত স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। সেখানে তার ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়। অভিযুক্ত ধর্ষক আবুল কাশেমকে আদালতে সোপদ করা হয়। বিজ্ঞ আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *