আলমডাঙ্গায় অভিনব কৌশলে প্রতারণার চেষ্টা : ধরা পড়ে শ্রীঘরে কুমারখালীর সানোয়ার

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: অভিনব কৌশলে আলমডাঙ্গায় প্রতারণা করতে গিয়ে ধরা পড়ে পুলিশের শ্রীঘরে এখন কুষ্টিয়া কুমারখালীর মাঝগ্রামের উঠতি বয়সী যুবক সানোয়ার হোসেন।
জানা গেছে, কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালি উপজেলার মাঝগ্রামের কারিগরপাড়ার মনিরুদ্দীনের ভবঘুরে ছেলে সানোয়ার হোসেন (২১)। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে সে আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ আতিয়ার রহমানের নিকট এই বলে অভিযোগ করে যে, আলমডাঙ্গা শহরে লুঙ্গি বিক্রি করে বাড়ি ফিরে যাওয়ার জন্য স্টেশনে পৌঁছুলে কতিপয় কিশোর তার নিকট থেকে নগত ৩ হাজার টাকা ও ১৫টি লুঙ্গি জোরপূর্বক ছিনিয়ে নিয়েছে। এ অভিযোগ পেয়ে আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ অভিযোগকারী যুবক সানোয়ারকে সাথে নিয়ে স্টেশনে গেলে স্টেশনের একপাশে বসে গল্পরত কয়েকজন কিশোরকে দেখিয়ে বলেন-এরাই তার লুঙ্গি ও টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে। সানোয়ারের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ ওই ৩ যুবককে আটক করে থানায় নেয়। আটক ৩ কিশোরের ক্রমাগত ঘটনার অস্বীকৃতির এক পর্যায়ে এবার অভিযোগকারীর সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ শুরু করে পুলিশ। অভিযোগকারীর এলাকার থানা পুলিশের সহযোগিতায় স্থানীয় গ্রামবাসীর নিকট খোঁজ নিয়ে পুলিশ জানতে পারে অভিযোগকারী নিজেই প্রতারক ও ছিচকে চোর। পরে পুলিশ আটক ৩ কিশোরকে ছেড়ে দিয়ে অভিযোগকারীকেই আটক করেছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *