আলমডাঙ্গার সোলায়মান দক্ষিণ আফ্রিকায় ডাকাতের গুলিতে নিহত

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: আফ্রিকা প্রবাসী আলমডাঙ্গার টার্মিনালপাড়ার সোলায়মান হোসেন নামের এক মধ্যবয়সী ডাকাতের গুলিতে নিহত হয়েছেন। তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার আমটাটার স্ট্যানকেফ নামক স্থানে ব্যবসা করতেন। গত পরশু আফ্রিকার সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে দোকান বন্ধ করে বাসায় ফেরার সময় গেটের সামনে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা তার মাথায় ও বুকে পর পর ৫টি গুলি করে হত্যা করে।
পরিবারসূত্রে জানা গেছে, কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার ইশেলমারী গ্রামের হাজি মৃত কিতাব ম-লের ছেলে সোলায়মান হোসেন (৫৬) বেশ কয়েক বছর পূর্বে আলমডাঙ্গার টার্মিনালপাড়ায় বাড়ি করেছেন। সেখানেই তার পরিবার বসবাস করে আসছে। গত প্রায় ১৪ বছর তিনি দক্ষিণ আফ্রিকায় থাকেন। বর্তমানে দক্ষিণ আফ্রিকার আমটাটার স্ট্যানকেফ নামক শহরে ব্যবসা দোকান রয়েছে তার। অন্যান্য দিনের মতো গত ১৯ অক্টোবর আফ্রিকার সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তিনি দোকান বন্ধ করে বাসায় ফিরছিলেন। বাসার গেটের সামনে উপস্থিত হলে পূর্ব থেকে ওত পেতে থাকা অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা তাকে লক্ষ্য করে নির্বিচারে গুলি চালায়। ২টি গুলি তার মাথায় ও ৩টি বুকে লাগে। সে সময় তার জামাই মনিরুজ্জামান কাজল ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। জামাইয়ের সামনে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু ঘটে।
নিহত সোলায়মান হোসেন ১ ছেলে ও ১ মেয়ের জনক ছিলেন। নিহতের ছেলে আলমডাঙ্গার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শিহাব উদ্দীন জানিয়েছেন, এখনও এ মর্মান্তিক হত্যাকা-ের বিষয়টি তাদের পরিবার জানেন না। শুধু জানেন গুলিবিদ্ধ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। তিনি জানান, ২০১৫ সালে একইভাবে নিহত সোলায়মান হোসেনের ভাই আলমডাঙ্গা এক্সচেঞ্জপাড়ার আরিফ হোসেনকে দক্ষিণ আফ্রিকায় সন্ত্রাসীরা গুলি করে হত্যা করেছিলো। নিহতের লাশ কবে নাগাদ দেশে পৌঁছুবে তা নিশ্চিত করে বলতে পারেনি কেউ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *