আলমডাঙ্গার নতিডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরি কামনাইটগার্ড নিয়োগে অর্থবাণিজ্যের অভিযোগ : গ্রামবাসীর মানববন্ধন

 

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি: আলমডাঙ্গা নতিডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরি কাম নাইট গার্ড নিয়োগে স্কুলের এমপির প্রতিনিধি বাড়াদী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মকবুলের বিরুদ্ধে ৩ জন নিয়োগ প্রার্থীর নিকট থেকে ২ লাখ ১০ হাজার টাকা নিয়ে নিয়োগ না দিয়ে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে গ্রামবাসী গতকাল শুক্রবার বিকেল ৫টার দিকে মানববন্ধন করেছে।

এ ব্যাপারে নতিডাঙ্গা গ্রামের ওবাইদুলের ছেলে জুয়েল অভিযোগ করে বলেন, স্কুলের এমপির প্রতিনিধি মকবুল নিয়োগ দেয়ার নাম করে গত এক মাস আগে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা নেন। স্কুলে নিয়োগ না দিয়ে বিভিন্ন টালবাহানা করেন। টাকা ফেরত চাইতে গেলে বলে টাকা উপর মহলে দেয়া হয়েছে। টাকা ফেরত দেয়া যাবে না। অপরদিকে একই গ্রামের আব্দুল্লার ছেলে বিপ্লব জানান, গত এক মাস আগে মকবুল নিয়োগ নেয়ার কথা বলে দেড় লাখ টাকা দাবি করেন। সেই টাকার মধ্যে বহু কষ্টে উপার্জিত ৪০ হাজার টাকা পরিশোধ করি। এখন নিয়োগ না দিয়ে বিভিন্নভাবে ঘুরিয়ে নিয়ে বেড়াচ্ছেন। এছাড়া একই গ্রামের মজিবারের ছেলে রাজিব অভিযোগ করে জানান, গত মাসে নিয়োগ দেয়ার কথা বলে এমপির প্রতিনিধি মকবুল দেড় লাখ টাকা ঘুষ দাবি করেন। সেই টাকার মধ্যে ৫০ হাজার টাকা পরিশোধ করি। বাকি টাকা নিয়োগ দেয়ার পর পরিশোধ করার কথা ছিলো। এখন আমাকে নিয়োগ না দিয়ে অন্যকে নিয়োগ দেয়া হচ্ছে। আমি টাকা ফেরত চাইলে বিভিন্নভাবে হুমকি দিচ্ছে বলে জানায়।

গ্রামাবাসী গতকাল শুক্রবার বিকেল ৫টার দিকে নতিডাঙ্গা গ্রামের ব্রিজের ওপর অত্র স্কুলের দপ্তরি কাম নাইট গার্ড নিয়োগ কমটির এমপির প্রতিনিধি বাড়াদী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মকবুলের শাস্তির দাবিতে একটি মানববন্ধন করেছে। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মকবুল জানান, আমি কারো কাছে থেকে নিয়োগ নেয়ার নাম করে টাকা নিইনি। আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *