আলমডাঙ্গার ঘোষবিলায় বীরপ্রতীকের কেয়ারটেকারকে বাড়ি ছাড়তে মোবাইলফোনে হুমকি : বাগানের ফলজ ও বনজ গাছ কর্তন

 

কেএ মান্নান: আলমডাঙ্গা ঘোষবিলার কৃতীসন্তান বীরপ্রতীক (অব. সুবেদার মেজর) সাইদুর রহমানের বাড়ি সংলগ্ন ফলজ ও বনজ গাছ শত্রুতাবশতঃ দুর্বৃত্তরা নির্বিচারে কেটে দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত বুধবার ০১৯৮৬-৮৪৮৭৩৭ নম্বর মোবাইলফোন থেকে বাড়ির কেয়ারটেকার ফিরোজকে হুমকি দিয়ে বাড়ি ছাড়তে বলে।

জানা গেছে,  আলমডাঙ্গার ঘোষবিলা গ্রামের মৃত খন্দকার আব্দুল মজিদের ছেলে বিডিআর’র (অবঃ সুবেদার মেজর) বীরপ্রতীক সাইদুর রহমানের বাড়ির কেয়ারটেকার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ফিরোজ। তিনি জানান বাড়ির মালিক চুয়াডাঙ্গার জাফরপুরে থাকেন। ঘোষবিলা গ্রামের এ বাড়ি ও জমিজমা দেখাশুনার দায়িত্বে রাখা হয় তাকে। গত বুধবার বেলা ২টা ৪৭ মিনিটে ০১৯৮৬-৮৪৮৭৩৭ নং থেকে ফোন করে অজ্ঞাত দুষ্কৃতীচক্র তাকে (কেয়াটেকার) এ বাড়ি ছেড়ে যেতে হুমকি দেয়। কোনো  পরিচয় না দিয়েই বলে- “তুই এ বাড়ি ছাড় না হলে শ্রীনগরের মাঠে নিয়ে তোকে জবাই করবো।” অব্যাহতভাবে বার বার তাকে দেয়া হয় জীবননাশের হুমকি। কেয়াটেকার ফিরোজ এ হুমকির ব্যাপারে গৃহকর্তা বীরপ্রতীক সাইদুর রহমানকে জানান। রাতে দুর্বৃত্তরা  বাগানের ফলজ ও বনজ গাছ কেটে দেয়। এ ব্যাপারে বাড়ির মালিক সাইদুর রহমান প্রতিবেশী মৃত ছকিরদ্দিন খানের ছেলে ফাকু (৫০) ও অপর প্রতিবেশী আমজাদ আলীর ছেলে মিস্টারকে (৩০) এ ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহ করেন। গতকাল বৃহস্পতিবার  সন্দিগ্ধ কয়েকজনকে অভিযুক্ত করে কেয়াটেকার ফিরোজ আলমডাঙ্গা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন বলে জানা গেছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *