আলমডাঙ্গার ঘোষবিলায় কুমারনদে ডুবে শিশু কৃষ্ণের মৃত্যু

 

জামজামি প্রতিনিধি: আলমডাঙ্গার ঘোষবিলায় কুমারনদে গোসল করেত নেমে ডুবে কৃষ্ণ নামের ৭ বছরের এক স্কুলছাত্রের  মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বুধবার দুপুরে কুমারনদে গোসল করতে যায়। সেখানে ডুবে যায় কৃষ্ণ। অনেক খোঁজাখুঁজির পর মৃতাবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

জানা গেছে, আলমডাঙ্গার জামজামি ইউনিয়নের ঘোষবিলা গ্রামের সংখ্যালোঘু হিন্দু পরিবারের শ্রী দিলিপ কুমার সাহার শিশুপুত্র শ্রী কৃষ্ণ কুমার সাহা। গ্রামের প্রাইমারি স্কুলের প্রথম শ্রেণির ছাত্র। গতকাল বুধবার দুপুরে স্কুল ছুটি শেষে বাড়ি ফিরে কৃষ্ণ মায়ের কাছে পেট দেখিয়ে বলে খুব ক্ষুধা পেয়েছে। মা বলে এইতো রান্না শেষ। দাড়া স্নান করে খাবি। বাড়ি সংলগ্ন কুমারনদে নেমে বন্ধুরা করছে হৈ- হুল্লোড়। মায়ের অপেক্ষায় তর সহেনি কোমলমতি শিশু কৃষ্ণ। বন্ধুদের সাথে গোসল করতে নেমে সাঁতার না জানা শিশু কৃষ্ণ আকস্মিক ডুবে যায়। মা শ্যামলী দ্রুত কাজ সেরে শিশু পুত্রকে ডাকাডাকি শুরু করে। পাশের বাড়ির স্বপ্না বলে কৃষ্ণতো আমাদের সাথে স্নান করলো!  তবে কোথায় গেলো সে; বাড়িতো ফেরেনি। শুরু হয় নদীতে নেমেই খোঁজাখুজি। পানির নীচে মেলে শিশু কৃষ্ণের নিথর দেহ। কৃষ্ণকে উদ্ধার করে জামজামি বাজারের পল্লি চিকিৎসকের চেম্বারে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তাকে আলমডাঙ্গার একটি ক্লিনিকে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, অনেক আগেই শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। একমাত্র সন্তান কৃষ্ণকে হারিয়ে মা শ্যামলী রানী সাহা হয়েছেন পাগল প্রায়।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *