আন্দুলবাড়িয়া-চাঁদপুর সড়কে ফের ছিনতাই

 

আন্দুলবাড়িয়া প্রতিনিধি: জীবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়িয়া-চাঁদপুর সড়কে ফের ছিনতাই সংঘটিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার ভোরে ছিনতাইকারী দল রাস্তায় ভুট্টাখড়ির গাঁদা ফেলে আলমসাধু গাড়ি গতিরোধ করে দুটি আলমসাধু ও ১টি মোবাইলফোন ছিনিয়ে নিয়েছে। সংসারের এক মাত্র শেষ সম্বল আলমসাধু গাড়ি হারিয়ে দু চালক দিশেহারা হয়ে পড়েছে।

জানা গেছে, আন্দুলবাড়িয়া মাঠপাড়ার মৃত আকবার আলীর ছেলে মহিদুল ইসলাম ( ৩২) ও বাজারপাড়ার মৃত রবিউল ইসলামের ছেলে আলমসাধুচালক ইসরাফিল হোসেন (২৮) গতকাল শুক্রবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে খাঁপাড়ার মৃত ছামু শেখের ছেলে ধনেপাতা ব্যবসায়ী বুদো শেখের (৪৮) সাথে সড়ক পথ দিয়ে তিতুদহ ইউনিয়নের বড়শলুয়া গ্রামে ক্ষেত মজুরদের নিকট যাচ্ছিলো। পথিমধ্যে চাঁদপুর রেলগেটের অদূরে চিহ্নিত ছিনতাই স্পটে পৌঁছুলে ৭/৮ জনের ছিনতাই কারীদল রাস্তায় ভুট্টা খড়ির গাঁদা ফেলে আলমসাধু গাড়ির গতিরোধ করে। তারা দেশীয় ধারালো অস্ত্রের মুখে চালক ও ব্যবসায়ীকে জিম্মি করে দুটি আলমসাধু গাড়ি ও ১টি মোবাইলফোন ছিনিয়ে নেয়। ছিনতাইয়ের শিকার আলমসাধুচালক মহিদুল ও ইসরাফিল হোসেন অভিন্ন ভাষায় বলছেন, এ সময় ধনেপাতা ব্যবসায়ী বুদো শেখ বাঁধা দিলে ছিনতাইকারীদল তাকে মারধর করে আলমসাধু নিয়ে চম্পট দেয়।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার ভোরে আন্দুলবাড়িয়া গ্রামের ডা. নুরুজ্জামান টুনুর ছেলে বাপ্পী (২৫) গভীর নলকূপের অদূরে ট্রাক্টর দিয়ে জমি চাষাবাদ করে বাইসাইকেলযোগে বাড়ি ফেরার পথে ছিনতাই স্পটে পৌঁছুলে ৭/৮ জনের একই ছিনতাইকারীদল গতিরোধ করে। বেপরোয়া ছিনতাইকারী দল পথচারীকে ধারালো অস্ত্র দেখিয়ে নানা হুমকি ও ভয়ভীতির মুখে নগদ ৩ হাজার টাকাও ১টি মোবাইলফোন ছিনিয়ে নেয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *