আগামী নির্বাচন গণতন্ত্রকে টেকসই করবে : প্রধানমন্ত্রী

 

স্টাফ রিপোর্টার: মহাসচিব বান কি মুনের উদ্বোধনী ভাষণের মধ্যদিয়ে গতকাল মঙ্গলবার জাতিসংঘের ৬৮তম অধিবেশন আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছে। এ অধিবেশনে অংশ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর আগে গত সোমবার নিউ ইয়র্ক পৌঁছেই ব্যস্ততম দিন পার করেন তিনি। এ সময় কমনওয়েলথ মহাসচিব কমলেশ শর্মার সাথে বৈঠককালে তিনি দৃঢ়তার সাথে বলেছেন আসন্ন নির্বাচন বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া ও সাংবিধানিক শাসনকে আরো টেকসই করবে। এ দিন দারিদ্র্য বিমোচনে সাফল্যের স্বীকৃতি হিসেবে পাওয়া সাউথ সাউথ পুরস্কারটি দেশের জনগণকে উৎসর্গ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল জাতিসংঘের ৬৮তম সাধারণ অধিবেশনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সিরিয়ার কাছে অস্ত্র না বিক্রি করার জন্য বিশ্বের শক্তিধর রাষ্ট্রগুলোর কাছে আবেদন জানিয়েছেন সংস্থাটির মহাসচিব বান কি মুন। এ সময় তিনি সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ ও বিরোধী দলের নেতাদের উদ্দেশে বলেন, যুদ্ধ কোনো সমাধান হতে পারে না। অবশ্যই রাজনৈতিক প্রক্রিয়াতে সিরীয় সমস্যার সমাধান করতে হবে। এ জন্য বিবদমান দলগুলোর নেতাদের বৈঠকে বসার আহ্বান জানান তিনি। এ অধিবেশনে যোগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এর আগে গত সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দৃঢ়তার সাথে বলেছেন, বাংলাদেশের পরবর্তী নির্বাচন দেশটির গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া ও সাংবিধানিক শাসনকে টেকসই করবে। নিউ ইয়র্কের গ্র্যান্ড হায়াত হোটেলে কমনওয়েলথ মহাসচিব কমলেশ শর্মার সঙ্গে এক বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *