আখচাষিদের সাথে মতবিনিময়কালে করপোরেপশনের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন

 

চিনি শিল্পকে বাঁচাতে বেশি বেশি আখচাষের বিকল্প নেই

দর্শনা অফিস: দেশের চিনি শিল্পগুলো বাঁচাতে সরকার গ্রহণ করেছে নানামুখি কর্মসূচি। আখচাষের প্রতি উদ্বুদ্ধ করণে চাষিদের সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করণের পাশাপাশি কর্মকর্তাদের দিকে রাখা হচ্ছে খেয়াল। সভা-সমাবেশে আখচাষে সুফল সম্পর্কে অবহিত করা হচ্ছে কৃষকদের। আখচাষের প্রতি আগ্রহী করে তুলতে সারাদেশের ন্যায় কেরুজ চিনিকলে অনুষ্ঠিত হয়েছে আখচাষিদের সাথে মতবিনিময়সভা। গতকাল শুক্রবার বিকেলে কেরুজ অফিসার্স ক্লাব চত্বরে অনুষ্ঠিত এ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যকালে বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের চেয়ারম্যান একেএম দেলোয়ার হোসেন বলেন, বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা আ.লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এখন উন্নয়নের মহাসড়কে। আমরা সকল বাধা শক্ত হাতে মোকাবেলা করে উন্নয়নে ধারা অব্যাহত রাখবো। আমাদের একটি কথা মনে রাখতে হবে, কৃষি প্রধান দেশে চাষিরাই সেদেশের প্রাণ। যুগযুগ ধরে চাষিকূল আমাদের অর্থনৈতিক বুনিয়াদকে সমৃদ্ধ করেছে। কৃষি বান্ধব এ সরকার কৃষকের সকল সুবিধা নিশ্চিত করতে হাতে নিয়েছে বিভিন্ন কর্মসূচি। তেমনিভাবে দেশের চিনি শিল্পকে বাচাতে হলে চাষি ভাইদের এগিয়ে আসতে হবে সবার আগে। সেক্ষেত্রে বেশি বেশি করে আখচাষের মধ্যদিয়েই সম্ভব দেশের এ মূল্যবান সম্পদ চিনিশিল্পকে রক্ষা করা। একটি কথা মনে রাখতে হবে আখচাষের মধ্যে ভুট্টাচাষ করবেন না। এতে আখের চিনি আহরণের হার কমে যায়। এতে যেমন ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে চিনিকল, তেমনি কৃষকদের লাভ্যংশ কমে যায়। কেরুজ চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবিএম আরশাদ হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের পরিচালক (সিডিআর) মোশাররফ হোসেন, চীফ টিএস আক্তার হোসেন, প্রধান প্রকৌশলী আ. রউফ খান, সিপিই আবু তাহের, প্রধান রাসায়নিকবিধ মোস্তাক আহমেদ, রেইন উইকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক পিয়ারুজ্জামান, কুষ্টিয়া চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আ. কাদের। কেরুজ কৃষি বিভাগের ব্যবস্থাপক সম্প্রসারণ গিয়াসউদ্দিনের উপস্থাপনায় অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কেরুচ চিনিকলের মহাব্যবস্থাপক (অর্থ) মোশারফ হোসেন,  মহাব্যবস্থাপক (কারখানা) আনোয়ার কবির, মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) মনোয়রুল ইসলাম, মহাব্যবস্থাপক (কৃষি) মুতিউল্লাহ, মহাব্যবস্থাপক (ডিস্টিলারী) ফিদাহ হাসান বাদশা, ডিজিএম (সম্প্রসারণ) শাহজ্জত আলী খান, প্রসাশনিক কর্মকর্তা আকরাম হোসেন শিকদার, সেলস অফিসার শেখ শাহবুদ্দিন প্রমুখ।

 

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *