অতিরিক্ত রেকটিফাইড স্পিরিট পানে ছেলেরও বাপের মতো মৃত্যু

 

আলমডাঙ্গার ডামোশ গ্রামে পিন্টু বিশ্বাসের মৃত্যুর পর মুখে মুখে একই উক্তি-বাপকা বেটা

 

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: উপর্যুপরি রেকটিফাইড স্পিরিট পানে নেশা করে মৃত্যু হয়েছে আলমডাঙ্গার ডামোশ গ্রামের পিন্টু বিশ্বাস নামের দু সন্তানের জনকের। রাতে রেকটিফাইড স্পিরিট পান করে শুয়ে সকালে ঘুম থেকে উঠেই পুনরায় উপর্যুপরি রেকটিফাইড স্পিরিট পান করলে তার মৃত্যু হয়। তার পিতাও ইতঃপূর্বে মদপানে মারা যায় বলে স্থানীয়রা জানান।

জানাগেছে, আলমডাঙ্গা উপজেলার বেলগাছি ইউনিয়নের ডামোশ গ্রামের মৃত হাজারি বিশ্বাসের ছেলে পিন্টু বিশ্বস (৩৫)গত বৃহস্পতিবার রাতে রেকটিফাইড স্পিরিট পান করে বাড়িতে ফেরেন। সকালে ঘুম থেকে উঠে তিনি পুনরায় উপর্যুপরি স্পিরিট পান করেন। স্পিরিট পানের এক পর্যায়ে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। সকাল ৯টার দিকে তাকে আলমডাঙ্গা শহরে ডাক্তার গোলাম মোস্তফার নিকট নিয়ে গেলে ডাক্তার তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। অতিরিক্ত স্পিরিট পানে লাঞ্চ ফেটে তার মৃত্যু হয়েছে বলে ডাক্তারের অভিমত।দু সন্তানের জনক পিন্টু বিশ্বাসের লাশ জানাজা শেষে গতকাল শুক্রবার বাদ জুম্মা গ্রামের গোরস্তানে দাফন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, পিন্টু বিশ্বাসের পিতা হাজারি বিশ্বাসের মৃত্যুরও কারণ ছিলো অতিরিক্ত মদ্যপান। এমন তথ্য দিয়ে গ্রামবাসীর অনেকে বাপের মতো ছেলেকেও অকালে মদে খেয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন।এদিকে, পিন্টু বিশ্বাসের এমন করুণ অকাল মৃত্যুতে দু অবুঝ সন্তান নিয়ে স্ত্রী রুপা খাতুনের চোখে এখন শুধুই আঁধার।

Leave a comment

Your email address will not be published.