হুমকিতে অস্ট্রেলিয়া দলের বাংলাদেশ সফর ও অ্যাশেজ সিরিজ

মাথাভাঙ্গা মনিটর: বেঁধে দেয়া সময়ের মধ্যে শুক্রবার চুক্তিপত্রে প্লেয়ার্স ইউনিয়ন স্বাক্ষর না করায় অসি ক্রিকেটাররা বেকার হয়ে যাবে বলে হুমকি দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট (সিএ)। এতে অনিশ্চয়তার মুখে পড়তে পারে অসি টেস্ট দলের বাংলাদেশ সফর ও চলতি বছরের অ্যাশেজ সিরিজ।

নির্ধারিত সময়ের মধ্যে অস্ট্রেলিয়ান খেলোয়াড়দের সমঝোতা চুক্তিতে (এমওইউ) স্বাক্ষর না করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। এর ফলে সিএ’র সাথে চুক্তিবদ্ধ ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ের ২৩০ জন পুরুষ ও মহিলা ক্রিকেটারের ভবিষ্যৎ হুমকির মুখে পড়বে।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া জানিয়েছে, খেলোয়াড় ও ক্রিকেটের স্বার্থে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনকে পুনরায় আলোচনার টেবিলে বসে এ বিষয়ে একটি সমাধান খুঁজে বের করারও আহ্বান জানানো হয়। এতে আরও বলা হয়, খেলোয়াড়দের রাজস্ব এবং বেতন-ভাতা সংক্রান্ত বিষয়াদি নিয়ে প্রয়োজনীয় পরিবর্তন নিয়ে অ্যাসোসিয়েশনের আগ্রহের ঘাটতির জন্যও ক্রিকেট সিএ হতাশ।

এ ঘটনায় খেলোয়াড়দের পাশাপাশি ক্রিকেটের আসন্ন সূচিসমূহও অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়ার আশংকা সৃষ্টি হয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে আগস্টে অসি টেস্ট দলের বাংলাদেশ সফর, সেপ্টেম্বরে ভারতের সাথে ওডিআই সিরিজ এবং বছরের শেষ ভাগে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অ্যাশেজ সিরিজ। আয়ের অংশ ও রাজস্ব ভাগাভাগি বিষয়ে খেলোয়াড়দের বয়স কমপক্ষে ২০ বছর নির্ধারণ এবং শীর্ষ ক্রিকেটারদের বেতন-ভাতা বাড়ানোর বিষয় নিয়ে পরস্পরের মুখোমুখি অবস্থান করছে সিএ ও প্লেয়ার্স ইউনিয়ন।

এদিকে রাজস্ব ভাগাভাগির বিষয়ে নিষ্পত্তি না হলে অ্যাশেজ সিরিজের সময় ধর্মঘট পালনের হুমকি দিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার শীর্ষ ক্রিকেট তারকারা। শীর্ষ ব্যাটসম্যান ডেভিড ওয়ার্নার বলেছেন যে, ‘তারা অবস্থান থেকে সরবেন না’। অ্যাশেজ সিরিজের সময় ধর্মঘট করারও হুমকি দেন তিনি।’ নির্ধারিত সময়ের মধ্যে চুক্তি না হলে জুলাইয়ে অস্ট্রেলিয়া ‘এ’ দলের দক্ষিণ আফ্রিকা সফরও অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়ে যাবে। সফরের অনুশীলনের জন্য মঙ্গলবার খেলোয়াড়দের ব্রিসবেনে সমবেত হবার কথা রয়েছে। এদিকে সিরিজ খেলার জন্য চুক্তির বাইরে থাকা গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও উসমান খাজার মতো তারকা খেলোয়াড়দের সাথে সিএ চুক্তি করতে পারে বলে খবর বেরিয়েছে। তবে সেটিও সম্ভাব্য বয়কটের কবলে পড়তে পারে।

বর্তমানে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করছে অস্ট্রেলিয়ার মহিলা ক্রিকেট দল। তবে টুর্নামেন্ট শেষ না হওয়া পর্যন্ত খেলার জন্য তাদের সাথে বিশেষ একটি চুক্তি রয়েছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার। এদিকে বর্তমান চুক্তির ত্রুটিগুলো দূর করতে এসিএ বোর্ড ও নির্বাহী কমিটির একটি বৈঠক আগামী রোববার সিডনিতে আয়োজনের কথা রয়েছে।

গত শুক্রবার সিএ যে সর্বশেষ প্রস্তাবনাটি দিয়েছে সেটিও প্রত্যাখ্যান করেছে এসিএ। তারা বলেছে যে, গত মার্চে রাজস্ব বণ্টন ও বেতন ভাতাদি প্রদান সংক্রান্ত যে প্রস্তাবনা তারা দিয়েছে সেখানেই তারা অটল আছে। তবে সেটি প্রত্যাখ্যান করেছে সিএ।

 

Leave a comment

Your email address will not be published.