সুয়ারেজের জোড়া গোলে বার্সেলোনার জয় অব্যাহত

মাথাভাঙ্গা মনিটর: এস্পানোল ও ভ্যালেন্সিয়াকে নিজ নিজ ম্যাচে পরাজিত করে সমান ৮১ পয়েন্ট নিয়ে লা লিগা টেবিলের শীর্ষস্থান যথারীতি ধরে রেখেছে বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদ। ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে দিনের শুরুতে মার্সেলোর শেষ মুহূর্তের গোলে ২-১ গোলে জয়ী হয়ে ম্যাচ বাঁচিয়েছে মাদ্রিদ। যদিও এখনো তারা কাতালানদের তুলনায় এক ম্যাচ কম খেলেছে, যা তাদেরকে শিরোপা স্বপ্নে টিকিয়ে রেখেছে। অন্যদিকে উরুগুয়ের তারকা লুইস সুয়ারেজের দুই গোলে কাতালান ডার্বিতে নগর প্রতিদ্বন্দ্বী এস্পানোলের বিপক্ষে ৩-০ গোলের জয় তুলে নিয়েছে বার্সেলোনা। মাদ্রিদের তুলনায় মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে থেকে টেবিলের শীর্ষস্থানে রয়েছে বার্সেলোনা।

ম্যাচ শেষে স্থানীয় টেলিভিশনে সুয়ারেজ বলেছেন, শুধুমাত্র একটি বিষয়ই আমরা লক্ষ্য রাখি, ম্যাচ জিততে হবে। আর এ কারণেই প্রতিপক্ষের ওপর চাপ প্রয়োগ করি। এখন দেখা যাক মৌসুমের শেষে ফলাফল কি দাঁড়ায়। ঘরের মাঠে হোসে ম্যানুয়েল জুরাডো প্রথমার্ধের সবচেয়ে সহজ সুযোগটি নষ্ট করলে এস্পানোলের এগিয়ে যাওয়া হয়নি। ওয়াটফোর্ডের সাবেক এই মিডফিল্ডারের একটি ভুল পাস থেকে বিররি পাঁচ মিনিট পরে সুয়ারেজ বল পেয়ে গোল করলে ম্যাচে ডেডলক ভাঙেন। গত পাঁচ ম্যাচে এটি ছিল সুয়ারেজের প্রথম গোল। লিওনেল মেসি মৌসুমের ৫০তম গোল করতে ব্যর্থ হলেও ৭৬ মিনিটে ইভাস রাকিটিচের গোলে তারই অবদান ছিল বেশী। ৮৭ মিনিটে সুয়ারেজ নিজের দ্বিতীয় গোল করলে ৩-০ ব্যবধানে জয়ী হয়ে মাঠ ছাড়ে সফরকারীরা।

এদিকে বার্নাব্যুতে মার্সেলোরা শেষ মুহূর্তের গোলে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর ব্যর্থতা কিছুটা হলেও ঘুচাতে সক্ষম হয়েছে মাদ্রিদ। ভ্যালেন্সিয়া গোলরক্ষক দিয়েগো আলভেসকে আরো একবার স্পট কিক থেকে পরাস্ত করতে ব্যর্থ হয়েছেন পর্তুগীজ তারকা। এই নিয়ে চার ম্যাচে তৃতীয়বারের মত আলভেসকে স্পট কিক থেকে গোল করতে ব্যর্থ হলেন রোনালদো। গত সপ্তাহে ক্ল্যাসিকোতে বার্সেলোনার কাছে ৩-২ গোলের পরাজয়ের ম্যাচটি থেকে আটজনকে পুনরায় ডেকে একাদশ সাজিয়েছিলেন মাদ্রিদ বস জিনেদিন জিদান। এই আটজন সপ্তাহের মাঝামাঝিতে দিপোর্তিভো লা করুনা বিপক্ষে ৬-২ গোলের জয়ী ম্যাচটিতে একাদশে ছিলেন না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *