সবজি বিক্রেতা থেকে ফিফা প্রধান!

মাথাভাঙ্গা মনিটর: পরশু ফিফা কংগ্রেসে ব্ল্যাটার, যেন বলছেন, আমার হাত শক্ত করুন। আলপাইনের কোলে ছোট্ট একটা শহর। সেই শহরেই জন্ম তাঁর। সোনার চামচ মুখে নিয়ে জন্মাননি। কাঠের চামচও জোটেনি। ছেলেবেলা থেকে নেমে পড়তে হয়েছিলো জীবিকার খোঁজে। বাবা চাকরি করতেন এক রাসায়নিক কারখানায়। বাবার সামান্য আয় স্বাচ্ছন্দ্যে চলার জন্য যথেষ্ট ছিল না। পরিবারের জন্য বরাদ্দকৃত খেতে সবজি চাষ হতো। একটু বাড়তি আয়ের জন্য ঠেলা গাড়িতে সেই সবজি নিয়ে বাজারে বিক্রি করতেন। তবে জীবিকার তাগিদে ২৫ বছর বয়স পর্যন্ত বিয়ের আসরে গান পর্যন্ত গেয়েছেন। সেটাই ছিল তাঁর তখনকার পেশা। কিন্তু ছাত্র হিসেবে ছিলেন তুখোড়। দীর্ঘদিন চাকরি করেছেন সুইস সামরিক বাহিনীতে। একটা রেজিমেন্টের অধিনায়কও ছিলেন। কর্নেল পদবি থেকে অবসরের পর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ব্যবসায় শিক্ষার ওপর ডিগ্রি নিয়েছেন। এখন তো চারটি ভাষায় অনর্গল কথা বলতে পারেন।

বর্ণাঢ্য জীবনের অধিকারী মানুষটির নাম সেপ ব্ল্যাটার। শুরু করেছিলেন শূন্য থেকে। তিনিই এখন এ ধরাতলের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলাটির অভিভাবক সংস্থার অভিভাবক। সেই ১৯৯৮ সালে ব্ল্যাটার-রাজ্যের শুরু। চলছে এখনো। কবে থামবে কে জানে!

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *