সন্ত্রাসী হামলায় শোকার্ত মেসি-রোনাল্ডো

মাথাভাঙ্গা মনিটর: স্পেনের সাম্প্রতিক ইতিহাসে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলায় বৃহস্পতিবার প্রাণ গেল ১৪ জনের। বার্সেলোনার লাস রামব্লাস পর্যটন এলাকায় ভিড়ের মধ্যে চলন্ত ভ্যান তুলে দেয়ার ঘটনায় আহত হয়েছেন ৫০ জনের মতো। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর মতো লা লিগার তারকা খেলোয়াড়রা। হতাহতদের প্রতি শোক-সমবেদনা প্রকাশে আরও কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে কাতালান ফুটবল ক্লাব বার্সেলোনা ও এস্পানল। ইনস্টাগ্রামে বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড মেসি লিখেছেন, ‘আমাদের ভালোবাসার শহর বার্সেলোনায় এ সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের পরিবার ও বন্ধুদের প্রতি আমার সমবেদনা জানাই। যে কোনো ধরনের সহিংসতার বিরুদ্ধে আমি।’ পাঁচবারের ব্যালন ডি’অরজয়ী আশা না হারানোর ডাক দিলেন, ‘আমরা আশা হারাচ্ছি না। আমাদের অনেকেই শান্তির পৃথিবীতে বসবাস করতে চাই, কোনো ঘৃণা ছাড়াই। যে পৃথিবীতে শ্রদ্ধা ও সহিষ্ণুতা আমাদের অস্তিত্ব ধরে রাখে, সেখানে থাকতে চাই।’ মানসিক আঘাত পেয়েছেন মেসির ক্লাব সতীর্থ লুইস সুয়ারেজ, ‘বার্সেলোনায় এমন ঘটনায় সত্যিই কষ্ট পেয়েছি। এ শহরের সব মানুষের প্রতি আমার সমবেদনা রইল।’ বার্সেলোনার হাভিয়ের মাসচেরানো, লুকাস দিগনে, সের্গিও রবার্তো, জেরার্ড দিউলোফু ও স্যামুয়েল উমিতি শোকবার্তা লিখেছেন টুইটারে। জানিয়েছেন তীব্র নিন্দা।
সম্প্র্রতি বার্সেলোনা ছেড়ে পিএসজিতে যোগ দেয়া নেইমার ভুলে যাননি শহরবাসীর কথা। ব্যথিত ব্রাজিলিয়ান লিখেছেন, ‘খুব কষ্ট পেয়েছি। বার্সেলোনার এ ঘটনায় আমি শোকার্ত। তাদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা।’ বার্সার সাবেক ব্রাজিলীয় তারকা রোনালদিনহো লিখেছেন, ‘বার্সেলোনা থেকে এমন খবর পেয়ে ভীষণ দুঃখ পেয়েছি। নিহতদের পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা ও সংহতি প্রকাশ করছি।’ স্প্যানিশ সুপার কাপে আগের রাতে বার্সেলোনাকে হারিয়ে শিরোপা জেতা রিয়াল মাদ্রিদও শোকসন্তপ্ত পরিবারগুলোর পাশে দাঁড়িয়েছে। ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর সঙ্গে গ্যারেথ বেল, সের্গিও রামোস, মার্কো আসেনসিও ও দানি কারভাহালও শোকাহত। রোনাল্ডো লিখেছেন, ‘বার্সেলোনায় এ ঘটনায় আমি হতবিহ্বল। হতাহত ও তাদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাই। তাদের পাশে আছি।’ রিয়াল তাদের ওয়েবসাইটে বিবৃতি দিয়েছে, ‘বার্সেলোনা শহরে এমন নিন্দনীয় হামলার ঘটনায় রিয়াল মাদ্রিদ গভীরভাবে ব্যথিত। নিহতদের পরিবার ও বন্ধুদের প্রতি সহানুভূতি জানাচ্ছি। যারা আহত হয়েছে, একই সঙ্গে তাদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করছি।’ শুধু শোক-সমবেদনা প্রকাশেই সীমাবদ্ধ থাকছে না বার্সেলোনা। আজ রোববার রিয়াল বেটিসের বিপক্ষে ম্যাচে ন্যুক্যাম্পে কালো আর্মব্যান্ড পরে নামবেন খেলোয়াড়রা। নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ক্লাবের পতাকা থাকবে অর্ধনমিত। খেলা শুরুর আগে এক মিনিট নীরবতা পালন করবেন দু’দলের খেলোয়াড়রা। লা লিগার প্রথম রাউন্ডে সব দল ম্যাচ শুরুর আগে একমিনিট নীরবতা পালন করবে। এক বিবৃতিতে বার্সেলোনা জানিয়েছে, ‘আমাদের শহরের প্রাণকেন্দ্র লা রাম্বলা ডি বার্সেলোনায় এ সন্ত্রাসী হামলার ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই। একই সঙ্গে গভীর সমবেদনা প্রকাশ করছি নিহতদের পরিবার ও বন্ধুদের প্রতি। আমরা তাদের পাশে থাকবো।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *