লেভানডফস্কির হ্যাটট্টিকে বড় জয়ে শুরু বায়ার্নের

 

মাথাভাঙ্গা মনিটর: পোল্যান্ডের স্ট্রাইকার রর্বাট লেভানডফস্কির হ্যাটট্টিকে বুন্দেস লিগায় বড় জয় দিয়ে যাত্রা শুরু করলো বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখ। শুক্রবার নিজেদের প্রথম ম্যাচে বায়ার্ন ৬-০ গোলে হারিয়েছে ওয়েন্ডার ব্রেমেনকে। গত আসরের সর্বোচ্চ গোলদাতা লেভানডফস্কি এবারও যাত্রাটা করলেন সেরার মত করেই। তাই চলমান আসরেও সবচেয়ে বেশি গোল করার লক্ষ্য পোল্যান্ডের এই তারকা খেলোয়াড়ের, ‘এবারও সর্বোচ্চ গোলের মালিক হতে চাই। শুরুটা চমৎকার হয়েছে। এমন চমৎকার পারফরমেন্স প্রত্যক ম্যাচেই করতে চাই।’ পেপ গার্দিওয়ালার তত্ত্ববধানেই গত তিন আসরে বুন্দেসলিগার শিরোপার স্বাদ নিয়েছিলো বায়ার্ন। তবে চলতি মরসুমে আর গার্দিওলার ফর্মুলায় খেলতে হবে না বায়ার্নকে। কারণ জার্মানি ছেড়ে ইতোমধ্যে লন্ডনে পাড়ি জমিয়েছেন গার্দিওয়ালা। দায়িত্ব নিয়েছেন ম্যানচেস্টার সিটির। চলমান মরসুম থেকেই ম্যান সিটির দায়িত্ব পালন করবেন ৪৫ বছর বয়সী গার্দিওয়ালা। তবে গার্দিওয়ালাকে ছাড়া ২০১৬-১৭ মরসুমে বুন্দেস লিগায় যাত্রাটা চমৎকারই করলো বায়ার্ন। সাবেক গুরুর ফর্মুলাটা হয়তো ভালোভাবেই মনে রেখেছেন লেভানডফস্কি। তাই গত আসরে লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা লেভানডফস্কির শুরুটা এবারও হলো দুর্দান্ত।

তবে নিজেদের মাঠে ওয়েন্ডার ব্রিমেনের বিপক্ষে স্পেনের জাভি আলোনসোর গোলেই ম্যাচের ৯ মিনিটেই এগিয়ে যায় বায়ার্ন। এ গোলের রেশ কাটতে না কাটতে স্কোরলাইনে নাম লেখান লেভানডফস্কি। ফলে ১৩ মিনিটের মধ্যে ২-০ গোলে এগিয়ে বায়ার্ন। অবশ্য পরবর্তীতে ওই অর্ধে আর গোলই করতে পারেনি বায়ার্ন। কারণ নিজেদের দ্রুতই গুছিয়ে নিয়ে বায়ার্নের আক্রমণগুলো সামাল দেয় ওয়েন্ডার ব্রেমেন। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে ওয়েন্ডার ব্রিমেনের সেইসব প্রতিরোধ পাত্তা পায়নি বায়ার্নের সামনে। ম্যাচের দ্বিতীয়ভাগে মাঠে বল গড়ানোর ৩৯ সেকেন্ডেই নিজের দ্বিতীয় গোল করে বার্য়ানকে ৩-০ গোলে এগিয়ে দেন লেভানডফস্কি। তার পথ অনুসরণ করে বায়ার্নকে চতুর্থ গোল এনে দেন ফিলিপ লাম। ৬৬ মিনিটে লামের গোলের পর ৭৩ মিনিটে স্কোরলাইনে নিজের নাম লিখেন আরেক অভিজ্ঞ খেলোয়াড় ফ্রাঙ্ক রিবেরি। ফলে ৫-০ গোলে লিড নেয় বায়ার্ন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *