ম্যারাডোনার বিশ্বকাপ ফেবারিট আর্জেন্টিনাই

মাথাভাঙ্গা মনিটর: ডিয়েগো ম্যারাডোনার হাত ধরেই ১৯৮৬ সালে সর্বশেষ বিশ্বকাপ ট্রফিকে চুমু এঁকেছিলো আর্জেন্টিনা। এ ম্যারাডোনাই ১৯৯০ সালে আর্জেন্টিনাকে নিয়ে গিয়েছিলেন টানা দ্বিতীয়বারের মতো শিরোপা জয়ের খুব কাছে। কিন্তু এরপর কেটে গেছে বহু বছর। বিশ্বকাপ জয়ের পর ২৭ বছর। আর সর্বশেষ ফাইনালে খেলার পর থেকে ২৩ বছর। বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা ভাঙতে পারেনি নিজেদের ব্যর্থতার বৃত্ত। দুয়ারে টোকা মারছে আরও একটি বিশ্বকাপ। এবার কি পারবে আর্জেন্টিনা ব্যর্থতার ঘেরাটোপ থেকে বেরিয়ে আসতে?

আর্জেন্টিনা পারবে কি পারবে না, এ নিয়ে অনেকের মধ্যে সংশয় থাকলেও ম্যারাডোনা মনে করেন ২০১৪ সালে ব্রাজিল বিশ্বকাপ জিতবে তার দেশ আর্জেন্টিনাই। ম্যারাডোনা এ ভবিষ্যদ্বাণী করলেও রেখে দিয়েছেন কিছুটা ফাঁকফোকরও। তার মতে, ব্রাজিলকে পেছনে ফেলতে পারলেই আর্জেন্টিনার লক্ষ্য পূরণটা সহজ হয়ে যাবে। জার্মানি ও হল্যান্ডকেও তিনি রেখেছেন সমীহের গণ্ডিতে। তবে তুড়ি মেরে উড়িয়ে দিয়েছেন ইতালির সব সম্ভাবনাকেই। বিশ্বকাপ নিয়ে ম্যারাডোনার মধ্যে উত্তুঙ্গ আত্মবিশ্বাস, ‘ব্রাজিলে’ ৮৬ বিশ্বকাপেরই পুনরাবৃত্তি ঘটবে। আর্জেন্টিনা আবার বিশ্বকাপ জিতবে। সর্বশেষ পাঁচ বছরে বিশ্বের শীর্ষ প্রতিযোগিতাগুলোর সব জিতে স্পেন নিজেদের নিয়ে গেছে অন্য উচ্চতায়। দুটি ইউরো আর বিশ্বকাপ জিতে নিজেদেরকে অবশ্যম্ভাবী ফেবারিট বানালেও স্পেনের ফুটবল কৌশলে যথেষ্ট বিরক্ত ম্যারাডোনা, ‘স্পেনের কৌশল খুবই বিরক্তিকর।’ তবে বিরক্তির কারণটা খোলাসা করেননি সর্বকালের অন্যতম সেরা এ প্লেমেকার। স্পেনকে নিয়ে একটা পর্যবেক্ষণ আছে তার, হঠাৎ প্রতি-আক্রমণে এ দলটা খুবই দুর্বল। প্রতি-আক্রমণ প্রতিরোধে স্পেন অতোটা সক্ষম নয়। ৮৬’র বিশ্বকাপ নায়ক কদিন আগে মন্তব্য করেছিলেন, এবার ফিফা ব্যালন ডি’অর জিততে পারে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো! তার কথা নিয়ে যে মাতামাতি হচ্ছে সেটি পছন্দ নয় ম্যারাডোনার, আসলে আমরা আর্জেন্টাইনরা নিজেদের অর্জনগুলোকে উপভোগ করতে পারি না। কেবল ফুটবলই নয়, জীবনযাপনের বিভিন্ন পর্যায়েও একই অবস্থা।

মেসির সাথে রোনালদোর তুলনাও পছন্দ নয় তার, আমি বুঝি না মেসি-রোনালদোর মধ্যে সব সময় কেন এতো তুলনা হবে? মেসিকে দয়া করে মেসির মতোই খেলতে দিন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *