মোহামেডানকে হারিয়ে শেখ জামালকে এড়ালো আবাহনী

স্টাফ রিপোর্টার: ফেডারেশন কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে দু চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর লড়াইয়ে জিতেছে আবাহনী লিমিটেড। গতকাল সোমবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে নীল-আকাশি শিবির ২-০ গোলে হারিয়েছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেডকে। আগেই ঐতিহ্যবাহী দু দলের কোয়ার্টার-ফাইনাল নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় ম্যাচটি ছিলো গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পাশাপাশি মর্যাদার লড়াইও। আর তাতে জিতে শক্তিশালী শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাবকে এড়িয়েছে আবাহনী। ম্যাচের দশম মিনিটে আবাহনী ব্রাজিল মিডফিল্ডার লুইস ডি কাস্ত্রোর গোলে এগিয়ে যায়। ফরোয়ার্ড তৌহিদুল আলমের ফ্রি কিকে হেডে গোলটি করেন কাস্ত্রো। ডিফেন্ডারদের ভুলেই মোহামেডান এই গোল খেয়েছে। কারণ কাস্ত্রো ছিলেন একেবারেই অরক্ষিত। ১৬ মিনিটে মোহামেডান সমতা আনার দারুণ সুযোগ হাতছাড়া করে। ফরোয়ার্ড জাহিদ হোসেনের ক্রসে এমিলির প্লেসিং শট সাইডবার ঘেষে বাইরে বলে যায়। চার মিনিট বাদে আরেকটি সুযোগ হাতছাড়া করে সাদা-কালো শিবির। নাইজেরীয় স্ট্রাইকার আনোনেমি চুকা মাঝমাঠ থেকে একটি বল পেয়ে বক্সে ঢুকে গোলরক্ষকে একা পেয়েও গোল করতে পারনেনি। তার শট সাইডবার ঘেষে বাইরে চলে যায়। এমনি করে মোহামেডান বেশ কয়েকটি সুযোগ তৈরি করে যখন গোল পাচ্ছিল না, ঠিক তখনই পাল্টা আক্রমণ থেকে আরেকটি গোল খেয়ে বসে তারা। ৭৬ মিনিটে আবাহনীর ব্যবধান দ্বিগুন করেন ঘানার স্ট্রাইকার ওসই মরিসন। তৌহিদের শট সাইডবারে লেগে ফিরে এলে ফিরতি বলে লক্ষ্যভেদ করেন ফাকায় দাঁড়ানো মরিসন। এবারও রক্ষণভাগের ভুলে গোলটি খেয়েছে মোহামেডান। পাল্টা আক্রমণ থেকে তৌহিদ বলটি পেয়ে সাদা-কালোর শিবিরের ডিফেন্ডারদের ফাকি দিয়ে বলটি নিয়ে বক্সে ঢুকে পড়েই শট করেন। মোহামেডানের ভারপ্রাপ্ত কোচ জুয়েল রানা এই হারের জন্য তাই ভাগ্যকেই দুষেছেন। টানা দু ম্যাচ জিতে আবাহনী ডি গ্রুপ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। তারা আগের ম্যাচে রহমতগঞ্জ এমএফসকে ৩-০ গোলে হারিয়েছিলো। আর মোহামেডান এক জয় নিয়ে হয়েছে গ্রুপ রানারআপ। স্ট্রাইকার জাহিদ হাসান এমিলির হ্যাটট্রিকে তারা ৫-২ গোলে জিতেছিল রহমতগঞ্জের বিপক্ষে।

আবাহনী ২৯ নভেম্বরের কোয়ার্টার ফাইনালে প্রতিপক্ষ পেয়েছে ‘এ’ গ্রুপ রানারআপ ফেনী সকার ক্লাবকে। আর ২৮ নভেম্বর মোহামেডানের প্রতিপক্ষ ‘এ’ চ্যাম্পিয়ন শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *